[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৮ মাঘ ১৪২৪, ২১ জানুয়ারি ২০১৮

bangla news

দর্শনার্থীদের আকর্ষণ শাওমি’র ইলেক্ট্রিক সাইকেলে

শরিফুল ইসলাম জুয়েল, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০১-১২ ৪:৩১:৩৫ পিএম
শাওমির সাইকেলে দর্শনার্থীদের আকর্ষণ-ছবি- কাশেম হারুন

শাওমির সাইকেলে দর্শনার্থীদের আকর্ষণ-ছবি- কাশেম হারুন

ঢাকা: রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) চলছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা। মেলায় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নতুন নতুন সব স্মার্টফোন ও ট্যাবকে ছাড়িয়ে দর্শনার্থীদের আকর্ষণের কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে চীনা কোম্পানি শাওমি’র ইলেক্ট্রিক সাইকেল ও স্কুটার। 
 

তিন দিনব্যাপী এ মেলার দ্বিতীয় দিন শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) ছুটির দিনে মেলা প্রাঙ্গণে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে।
 
এসব দর্শনার্থীরা পছন্দের ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন বা ট্যাব পরখ করতে আসলেও শাওমির ইলেক্ট্রিক সাইকেল ও স্কুটার কারো নজর এড়াতে পারেনি।
 
জানা গেছে, শাওমি ২০১৭ সালে বাংলাদেশের বাজারে একটি দৃষ্টিনন্দন ইলেকট্রিক স্কুটার নিয়ে আসে। যা স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলায় শাওমির স্টলে নিয়ে আসা হয়েছে।
 
একইসঙ্গে একটি ইলেকট্রিক সাইকেলও নিয়ে এসেছেন বাংলাদেশের বাজারে স্মার্টফোনের জনপ্রিয় এ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। আধুনিক এবং দৃষ্টিনন্দন এ বাহন দু’টিতে এক পলক চোখ বুলিয়ে নিতে সবাই ভিড় জমাচ্ছেন শাওমির স্টলে।
 
৭৪ হাজার ৯শ’ ৯০ টাকা মূল্যের ইলেকট্রিক সাইকেলটি চার্জ এবং প্যাডেল উভয় মাধ্যমেই চলবে। ‘এমআই কাই সাইকেল’ মডেলের এ বাহনটি একবার চার্জ দিলে টানা ৪৫ কি.মি. চালানো যাবে।
 
এছাড়া ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৩০ কি.মি বেগে চলতে সক্ষম এ সাইকেলে রয়েছে জিপিএস ডিভাইস, যার মাধ্যমে সাইকেলের লোকেশন মনিটর করা যাবে। স্পিড মিটারের মাধ্যমে চালকের হার্টবিট, সাইকেলের গতিবেগও মনিটর করা যাবে। মেলা উপলক্ষে পণ্যটিতে ১০ শতাংশ মূল্য ছাড় দেওয়া হয়েছে।
 
একইভাবে সর্বোচ্চ ১০০ কেজি ওজন বহন করতে সক্ষম ইলেকট্রিক স্কুটার ‘এমআই স্কুটার’ এর মূল্য ধরা হয়েছে ৬৪ হাজার ৯শ’ ৯০ টাকা। চালক পা দিয়ে একটু ধাক্কা দিলেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলতে শুরু করবে এ স্কুটার। এজন্য ছোট-বড় সবাই স্কুটারটি চালাতে পারবেন।
 
ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২৫ কি. মি. বেগে ছুটতে সক্ষম এ স্কুটারে চারটি গিয়ার যুক্ত করা হয়েছে গতি কমানো-বাড়ানোর জন্য। রয়েছে হাইড্রোলিক ব্রেকও।
 
তবে সব থেকে মজার ব্যাপার হলো সাইকেল ও স্কুটারের ওজন হালকা এবং ভাঁজ করা যায়। ফলে সহজেই যেকোনো স্থানে বহন করা সম্ভব।
 
পণ্য দু’টিতে এক বছর বিক্রয়োত্তর সেবা এবং ব্যাটারির জন্য ৬ মাসের ওয়ারেন্টি দিচ্ছে শাওমি।
 
পণ্য দু’টি সম্পর্কে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিজয় বাংলানিউজকে বলেন, সাইকেলটি দেখতে খুবই সুন্দর। এর ফিচারগুলোও বেশ ইন্টারেস্টিং। তবে দামটা একটু বেশি। বাংলাদেশি মানুষের জন্য সাধারণত এতো দামে সাইকেল কেনা একটু কষ্টসাধ্য। দামটা আর একটু কম হলে ভালোই হতো। 

শাওমি’র ব্র্যান্ড কমিউনিকেশন এক্সিকিউটিভ তুষার বাংলানিউজকে বলেন, স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলায় মূলত চমক হিসেবে আমরা পণ্য দু’টি এনেছি। উন্নত বিশ্বে এ সাইকেল পরিচিত হলেও বাংলাদেশে একেবারেই নতুন। এতে মজার মজার ফিচার যুক্ত করা হয়েছে।
 
দামের বিষয়ে তিনি বলেন, সবার কথা চিন্তা করে মেলা উপলক্ষে আমরা ১০ শতাংশ মূল্য ছাড় দিয়েছি।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৬২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০১৭
এসআইজে/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa