[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ২ পৌষ ১৪২৪, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭

bangla news

এসএমএস-অনলাইনে দুর্যোগ মোকাবেলা, জানাচ্ছে অধিদফতর

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-১২-০৭ ৪:০১:০০ পিএম
ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতর। ছবি: শাকিল/বাংলানিউজ

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতর। ছবি: শাকিল/বাংলানিউজ

ঢাকা: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) ব্যবহার করে কীভাবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা করা যায় তা জানাতে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে অংশ নিয়েছে সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতর।

আইসিটি ব্যবহার করে দুর্যোগের পূর্বাভাস ও দুর্যোগ পরবর্তী নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করে ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে তথ্য নিচ্ছেন দর্শনার্থীরা।
  
রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) শুরু হওয়া ৪ দিনব্যাপী ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১৭ এর দ্বিতীয়দিন বৃহস্পতিবার (০৭ ডিসেম্বর) হল অব ফেমের সামনে এই স্টলটিতে দেখা যায় দর্শনার্থীদের ভিড়।
 
অধিদফতরের কর্মকর্তারা জানান, সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি ও দুর্যোগের ঝুঁকি হ্রাসে আইসিটির ব্যবহার করা হচ্ছে। দুর্যোগের আভাস পেতে তাৎক্ষণিকভাবে যে কেউ ‘১০৯০’ নম্বরে কল করে জানা যাবে সর্বশেষ পূর্বাভাস।  

এছাড়া প্রশাসনকে প্রস্তুত করতে জেলা প্রশাসক এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে মোবাইল ফোনে এসএমএস পাঠানো হয়। আর সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয় প্রশাসন। 

স্টলটিতে অধিদফতরের প্রোগ্রামার কবির কুমার দাশ বাংলানিউজকে বলেন, দুর্যোগ পরবর্তী ক্ষতি নিরূপণে অনলাইনে তাৎক্ষণিকভাবে কেন্দ্রীয় তথ্য ভাণ্ডারে তথ্য জমা হয়। জেলা-উপজেলা থেকে অধিদফতরে তথ্য পেয়ে দুর্যোগ কবলিতদের জন্য সরাসরি বরাদ্দ ও ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
 
‘আগে যেখানে ম্যানুয়ালি তথ্য পাঠানোর বিড়ম্বনা থাকতো তেমনি দেরিতে তথ্য পেয়ে সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতেও বিলম্ব হতো। আর সেজন্য ক্ষতির পরিমাণও ছিলো বেশি। আইসিটির ব্যবহার অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে গেছে।’

কর্মকর্তারা বলছেন, অধিদফতরের ওয়েবসাইটে দুর্যোগ প্রস্তুতির মহড়া, দুর্যোগের তথ্য ও করণীয় সম্পর্কে নানা তথ্য পাওয়া যাবে। যা প্রচার করার জন্য মূলত তথ্য-প্রযুক্তির এই মেলায় এসেছে অধিদফতর। 
 
অধিদফতরের সহকারী প্রোগ্রামার আব্দুল কুদ্দুস জানান, দেশি-বিদেশি দর্শনার্থীরা মেলায় এসে দুর্যোগের সময় ও দুর্যোগের আগে করণীয় উপায় বিষয়ে জানতে চাচ্ছেন। 

ডিজিটাল মেলায় সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভিন্ন সংস্থা এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের উদ্ভাবনীমূলক প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত রাত ৯টা থেকে বিনামূল্যে দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকছে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের ফটক।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৭
এমআইএইচ/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Alexa