[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৩ নভেম্বর ২০১৭

bangla news

আইফোন ১০ আনলো অ্যাপল

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-১১-০৩ ৮:৫৪:১২ এএম
আইফোন ১০ আনলো অ্যাপল

আইফোন ১০ আনলো অ্যাপল

দীর্ঘ প্রতীক্ষিত অ্যাপল আইফোন ১০ চালু হয়েছে বিভিন্ন দেশের মতো সিঙ্গাপুরের অ্যাপল স্টোরেও। শুক্রবার (০৩ নভেম্বর) স্থানীয় সময় সকাল আটটায় বিক্রি শুরু হলেও এটি কিনতে বৃহস্পতিবার (০২ নভেম্বর) রাত থেকেই দোকানের সামনে ক্রেতাদের দীর্ঘ লাইন জমে যায়। আর ক্রেতাদের কেউ কেউ লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন আগের দিন ভোর থেকে, অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে!

অর্চার্ড রোডের অ্যাপল স্টোরে মাত্র গত সেপ্টেম্বর মাসেই আইফোন ৮ ও আইফোন ৮ প্লাস চালু হয়। সে সময়ের চেয়ে আরও বেশি ক্রেতা আইফোন ১০ এর জন্য এসেছিলেন উদ্বোধনের দিনেই।

দরজা খোলার নির্ধারিত সময়ের আগের রাত থেকেই দোকানের বাইরে ভক্তদের ভিড়ের চাপে অ্যাপল দল সময় গণনা শুরু করে। ক্রেতারাও এটিকে ব্যাপক সাড়া দিয়ে স্বাগত জানান।

অ্যাপল স্টোরের বাইরে দু’টি লাইন করা হয়েছিল। যারা আগে থেকেই ফোনের অর্ডার দিয়ে রেখেছিলেন, তারা একটি লাইনে এবং অন্যটিতে তাৎক্ষণিক ক্রেতারা দাড়ান।

অগ্রিম বুকিং দেওয়া ক্রেতাদের সারি থেকে দোকানে প্রথমে প্রবেশ করার সুযোগ পান থাইল্যান্ডের দুই ২২ বছরের শিক্ষার্থী মাহিদোল বিশ্ববিদ্যালয় ইন্টারন্যাশনাল কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী কিত্তীওয়াত ওয়াং ও থমাসসেট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী সুপাকণ রিক্সিশিরি। তারা দু’জনে দু’টি ফোনের জন্য গত ২৭ অক্টোবর অগ্রিম অর্ডার দিয়ে রেখেছিলেন।

দোকানে প্রবেশ করার আগে কিত্তীওয়াত ওয়াং বলেছিলেন যে, আমরা কোনো খাবার আনিনি। আমরা এতো উচ্ছ্বসিত যে, আমরা খেতেও পারছি না’।

ক্রেতাদের রূপালী ও ধূসর রঙের দু’ধরনের অ্যাপল আইফোন ১০ দেওয়া হচ্ছে। ৬৪ গিগাবাইট মেমোরিরটি ১ হাজার ৬৪৮ ডলার ও ২৫৬ গিগাবাইট মেমোরিরটি ১ হাজার ৮৮৮ ডলারে বিক্রি করছেন বিক্রেতারা।

তাৎক্ষণিক ক্রেতাদের সারিতে দোকানে প্রবেশের জন্য প্রথমে ছিলেন ৫৩ বছরের গৃহবধূ ইলহা আহমেদ ও তার ছেলে। সবচেয়ে আগে থাকতে ২৪ ঘণ্টারও বেশি লাইনে থাকতে হয়েছে তাদেরকে। দোকান খোলার ২০ মিনিটের মধ্যে চারটি ফোনের অর্থ পরিশোধ করতে পেরেছেন মা-ছেলে।

আত্মপ্রত্যয়ী এই বিশাল অ্যাপল ভক্ত ও তার ছেলে বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ছয়টা থেকেই লাইনে এসে দাড়ান। একটি ক্লান্তিকর রাত অপেক্ষার পর ইলহা  বলেন, ‘আমি মনে করি না যে, পরেও আমাকে ফোন মেরামতে বা বদলাতে আসতে হবে। তবে এটি অ্যাপল ফোনটি কিভাবে বের করেছে, তার ওপর নির্ভর করছে’।

অর্চার্ড রোডের স্টোরটিতে ৮০০ জন পর্যন্ত ভক্তের ভিড় দেখা গেছে। গত সেপ্টেম্বরের শেষদিকে আইফোন ৮ ও আইফোন ৮ প্লাস চালুর দিনের চেয়ে এ সংখ্যা ২০০ জনেরও বেশি।

এদিকে দোকান খোলার দুই ঘণ্টার মধ্যে কারৌসেলের মতো অনলাইন বাজারে দ্বিতীয় দফায় বিক্রির জন্য ২০টিরও বেশি আইফোন ১০ দেওয়া হচ্ছে। ক্রেতারা অ্যাপল স্টোর থেকে ফোন কিনে অনলাইনে মূল্য চাচ্ছেন ২ হাজার ৫০০ ডলার বা তারও বেশি। অর্থাৎ কমপক্ষে ৬০০ ডলার লাভে বিক্রি করতে চাচ্ছেন প্রথমদিকে আইফোন ১০ হাতে পাওয়া ক্রেতারা।

২০০৭ সালে প্রথম আইফোন বাজারে ছেড়েছিল অ্যাপল। দশকপূর্তি উপলক্ষে গত ১২ সেপ্টেম্বর নতুন তিনটি ফিচারের আইফোন ১০, ৮ ও ৮ প্লাস চালুর  ঘোষণা দেন মার্কিন কোম্পানিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টিম কুক।

সিঙ্গাপুরের অ্যাপল স্টোরে ছিল আগেরদিন ভোর থেকেই ক্রেতাদের জমজমাট ভিড় ওই মাসেরই শেষ দিক থেকে বাজারে আসা আইফোন ৮ ও ৮ প্লাস- এর দাম শুরু ৬৯৯ মার্কিন ডলার ও ৭৯৯ মার্কিন ডলার থেকে।

ফলে দ্বিতীয়বারের মতো কম সময়ের মধ্যে আইফোন ৮ ও আইফোন ৮ প্লাস চালুর পাশাপাশি আইফোন ১০ চালুর প্রত্যাশাও পূরণ করলো অ্যাপল স্টোর।

বাংলাদেশ সময়: ০৮৫৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৩, ২০১৭
এএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa