Alexa
ঢাকা, শনিবার, ৬ শ্রাবণ ১৪২৪, ২২ জুলাই ২০১৭

bangla news

ত্রিপুরা পালিত হলো ভাষা শহীদ দিবস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৫-১৯ ৯:৩৫:৪৪ পিএম
ত্রিপুরার মানচিত্র

ত্রিপুরার মানচিত্র

আগরতলা: বাংলাদেশে মাতৃভাষা হিসেবে বাংলার স্বীকৃতির দাবিতে যে দীর্ঘ রক্তক্ষয়ী সংগ্রাম হয়েছিলো তা বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত। বাংলা ভাষার স্বীকৃতির জন্য ভারতের আসাম রাজ্যের শিলচর শহরেও প্রাণ দিয়েছিলেন বেশ কিছু মানুষ। সেই দিনটি পালন করা হয় ভাষা শহীদ দিবস হিসেবে।

তৎকালীন আসাম সরকার ঘোষণা দেয় আসাম রাজ্যে শুধু অসমিয়া ভাষা চালু থাকবে অন্য কোনো ভাষা চলবেনা। এর প্রতিবাদে ও বাংলা ভাষাকে স্বীকৃতির দাবিতে ১৯৬১ সালের ১৯ মে রাস্তায় নেমে সরকারের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানায় সাধারণ মানুষ।

প্রতিবাদীদের উপর নির্বিচারে গুলি চালালে শহীদ হন বেশ কয়েকজন। দিনটিকে প্রতিবছর আসামের বরাক উপত্যকা ও ত্রিপুরা রাজ্যে দিনটি শহীদ দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

শুক্রবার (১৯ মে) সবচেয়ে বড় অনুষ্ঠানটি হয় উত্তর জেলার ধর্মনগরে। স্থানীয় বিবেকানন্দ সার্ধশতবার্ষিকী ভবনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজ কল্যাণ ও সমাজ শিক্ষা দফতরের মন্ত্রী বিজিতা নাথ, উত্তর ত্রিপুরা জেলা পরিষদের সভাধিপতি প্রতিমা দাস, বিধায়ক রাজেন্দ্র রিয়াং, ধর্মনগর পুরপরিষদের চেয়ারম্যান শক্তি ভট্টাচার্য্য, সাবেক বিধায়ক অমিতাভ দত্ত প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে রাজ্যের খ্যতনামা কবি অনুকূন সিনহাকে ভাষা সম্মাননা জানানো হয়। মন্ত্রী বিজিতা নাথ তার হাতে সম্মাননাপত্র তুলে দেন।

ত্রিপুরা সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি দফতর, ধর্মনগর পুরপরিষদ এবং উত্তর ত্রিপুরা জেলা পরিষদের যৌথ উদ্যোগে হয় এ দিনের অনুষ্ঠান।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩২ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০১৭
এসসিএন/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..
Alexa