[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৪ মে ২০১৮

bangla news

নবজাতকের চিকিৎসায় ঢামেকে উন্নত সরঞ্জাম

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১৭ ৩:২৫:২৪ পিএম
ঢামেক সভাকক্ষে হাসপাতাল পরিচালকের হাতে নতুন সরঞ্জাম তুলে দেওয়ার আনুষ্ঠানিকতা। ছবি: বাংলানিউজ

ঢামেক সভাকক্ষে হাসপাতাল পরিচালকের হাতে নতুন সরঞ্জাম তুলে দেওয়ার আনুষ্ঠানিকতা। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: নবজাতক শিশুর চিকিৎসা ও পরিচর্যা আরও উন্নত করার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নতুন একটি ‘বাবল কন্টিনিয়াজ পজিটিভ এয়ারওয়ে পেশার’ (সিপিএপি) মেশিন ও সাতটি ‘সিরিঞ্জ পাম্প’ দিয়েছে কানাডার দু’টি সংগঠন। হিউম্যান কনসার্ন ইন্টারন্যাশনাল (এইচসিআই) এবং কেয়ার ফর ওম্যান অ্যান্ড চিলড্রেন (সিডব্লিউসি) নামের সংগঠন দু’টির দেওয়া এসব সরঞ্জামের বাজার মূল্য ১০ লাখ ৪৫ হাজার টাকা।

বৃহস্পতিবার (১৭ মে) সকালে ঢামেক সভাকক্ষে হাসপাতাল পরিচালকের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে চিকিৎসা সরঞ্জামগুলো তুলে দেন স্বেচ্ছাসেবী উন্নয়ন সংস্থা ‘সুরভি’র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এসময় সুরভি’র নির্বাহী পরিচালক মো. আবু তাহের বলেন, সুরভি শিশুদের নিয়ে কাজ করে। শ্রমজীবী শিশুদের শিক্ষা, চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দেওয়াই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। 

তিনি আরও বলেন, কানাডার সেচ্ছাসেবী সংগঠন সিডব্লউসি'র সঙ্গে জড়িত আছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ থেকে পাশ করা ডা. সুমাইয়া। তিনিই এই চিকিৎসা সরঞ্জামাদির ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। মেশিনটি লাখ টাকা ও সিরিঞ্জ পাম্প মেশিন প্রতিটি ৮৫ হাজার টাকা করে।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের নবজাতক বিভাগের অধ্যাপক ডা. তোফাজ্জল হোসেন বলেন, এরআগে হাসপাতালে ১২টি সিরিঞ্জ পাম্প ছিল। এখন পাওয়া এই ৭টি মিলিয়ে মোট ১৯টি সিরিঞ্জ পাম্প হলো। তবে হাসপাতালের দরকার ৩০-৩৫টি। এরমাধ্যমে নিখুঁতভাবে নবজাতকদের ইনজেকশন দেওয়া যাবে।

তিনি জানান, ঢামেকের সিপিএপি মেশিন এই নিয়ে মোট ৩টি। এরমাধ্যমে শ্বাসকষ্ট জটিলতায় আক্রান্ত নবজাতককে আরও সুন্দর ও নিপুণভাবে শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যবস্থা করা যাবে। ফলে বাংলাদেশের নবজাতকদের চিকিৎসার মান এগিয়ে যাবে।

ঢামেকের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম নাসির উদ্দিন জানান, নতুন এতোগুলো মেশিন পেয়ে আমি অনেক আনন্দিত। আমারা সবাই চাই মা ও শিশুরা নিরাপদে থাকুক ও চিকিৎসা পাক। শিশুদের চিকিৎসা পাওয়ার অধিকার অন্য সবার থেকে বেশি। আর এ চিকিৎসায় এই সরঞ্জামগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এতে অনেক শিশুর জীবন বাঁচানো সহজ হবে। 

সুরভি’র সব কর্মকর্তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে এ ধরনের সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য সবাইকে আহ্বান জানান তিনি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৫ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০১৮
এজেডএস/এনএইচটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa