ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭

bangla news

ঢামেকে আরও ২টি এমআরআই ১টি সিটি স্ক্যান

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৬-১৯ ৮:৩৩:৫৫ পিএম
ঢামেকে ২টি এমআরআই ১টি সিটি স্ক্যান মেশিন উদ্বোধন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢামেকে ২টি এমআরআই ১টি সিটি স্ক্যান মেশিন উদ্বোধন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে আরও দু’টি নতুন এমআরআই ও একটি সিটি স্ক্যান মেশিন চালু হয়েছে।

সোমবার (১৯ জুন) বিকেলে ঢামেক হাসপাতাল-২ এর ষষ্ঠ তলার সভা কক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম মেশিনগুলোর উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রায় একশ বছর আগের তৈরি ঢামেক হাসপাতাল। শত বছর ধরে এ হাসপাতালের উপর নির্ভর করে আছে দেশের মানুষ। এখানে বিছানা না থাকলেও কোন রোগী ফেরত যায় না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখনই ক্ষমতায় এসেছেন তখনই এ হাপাতালের জন্য কিছু না কিছু করেছেন। সর্বশেষ সিদ্ধান্ত মতে প্রায় আড়াই হাজার শয্যার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল হবে। আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে এখানে নতুন একটি সম্প্রাসারণ ভবন দেখতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, রোগীদের সমস্যা সমাধানের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় চিন্তা করেন। তারই প্রচেষ্টায় এখানে ‘বোনম্যারো ট্রান্সপ্লানটেশন' তৈরি করেছেন। তিনি এখানে বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট তৈরি করেছেন।  স্বাস্থ্যখাতে তার যে চিন্তা এগুলোই তার প্রতিফলন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক বলেন, দেশের মানুষ কোন হাসপাতালের নাম না জানলেও ঢামেক হাসপাতালের নাম জানে। এখানে সব রোগীরই চিকিৎসা দেওয়া হয়। আজকে আরও দু’টি এমআরআই ও একটি সিটি স্ক্যান মেশিন দিয়েছে। দু’টি মেশিনের দাম প্রায় ৩০ কোটি টাকা।মেশিন উদ্বোধনকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ও স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক। ছবি: বাংলানিউজ

আমরা অন্য যে কোন হাসপাতাল থেকে ঢাকা মেডিকেলকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকি। তাই এখানে তিনটি মেশিন দেওয়া হয়েছে। আমরা আশা করব এ মেশিনের যথাযথ ব্যবহার করবেন। আমাদের চিকিৎসকের প্রয়োজন রয়েছে। আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১০ হাজার চিকিৎসক নিয়োগের ব্যাপারে বলেছি। আশা করছি দ্রুত নিয়োগ হবে। এছাড়াও পুরাতন ভবনগুলো ভেঙে নতুন ভবন তৈরির প্রস্তাব রেখেছি।

ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মিজানুর রহমানের সভাপত্বিতে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের কার্যকরী পরিষদের সম্পাদক ডা. জামাল উদ্দিন চৌধুরী, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ খান আবুল কালাম আজাদ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক এম ইকবাল আর্সোলান, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ডা. দেবেশ চন্দ্র তালুকদার।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩১ ঘণ্টা, জুন ১৯, ২০১৭
এজেডএস/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Alexa