[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৬ ফাল্গুন ১৪২৪, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

bangla news
ইতিহাসের এই দিনে

হুমায়ুন ফরিদীর প্রয়াণ

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০২-১৩ ১২:২৩:২৯ এএম
হুমায়ুন ফরিদী (ফাইল ফটো)

হুমায়ুন ফরিদী (ফাইল ফটো)

ঢাকা: ইতিহাস আজীবন কথা বলে। ইতিহাস মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানবসভ্যতার অভিশাপ-আশীর্বাদ।

তাই ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সবসময় গুরুত্ব বহন করে। এই গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিন’।

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, মঙ্গলবার। ১ ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনা
•    ১৭৩৯ - কারনালের যুদ্ধে ইরানি শাসক নাদির শাহর বাহিনী মুঘল সম্রাট মুহাম্মদ শাহর বাহিনীকে পরাজিত করে।
•    ১৮৮০ - টমাস আলভা এডিসন ‘এডিসন ইফেক্ট’ পর্যবেক্ষণ করেন।
•    ১৯৩১ - ব্রিটিশ ভারতের রাজধানী কলকাতা থেকে নয়া দিল্লিতে স্থানান্তর সম্পন্ন হয়।
•    ১৯৪৫ - দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সোভিয়েত বাহিনীর কাছে নাৎসি জার্মানি ও হাঙ্গেরি বাহিনীর নিঃশর্ত আত্মসমর্পণের মাধ্যমে বুদাপেস্ট অবরোধের সমাপ্তি।
•    ১৯৫৫ - ইসরায়েল সাতটি ডেড সি স্ক্রলের মধ্যে চারটি লাভ করে।
•    ১৯৮২ - গুয়েতেমালায় রিও নিগ্রো গণহত্যা সংঘটিত।

জন্ম
•    ১৫৯৯ - সপ্তম আলেক্সান্ডার, পোপ।
•    ১৮৭৯ - সরোজিনী নাইডু, ভারতীয় বাঙালি স্বাধীনতা সংগ্রামী।
•    ১৮৯১ - গ্রান্ট উড, মার্কিন চিত্রশিল্পী।
•    ১৮৯২ - রবার্ট এইচ জ্যাকসন, মার্কিন আইনজীবী, বিচারক ও রাজনীতিবিদ, যুক্তরাষ্ট্রের ৫৭তম অ্যাটর্নি জেনারেল।
•    ১৯১৩ - খালিদ বিন আবদুল আজিজ, সৌদি আরবের বাদশাহ।
•    ১৯২৯ - গাজীউল হক, বাংলাদেশের প্রখ্যাত গীতিকার, সাহিত্যিক ও ভাষা সৈনিক।

মৃত্যু
•    ৮৫৮ - কেনেথ ম্যাকআলপিন, স্কটিশ রাজা।
•    ১১৩০ - দ্বিতীয় হনোরিয়াস, পোপ। 
•    ১৫৮৫ - অলফনসো সালমেরন, স্প্যানিশ যাজক ও পণ্ডিত।
•    ১৭২৭ - উইলিয়াম উটন, ব্রিটিশ ভাষাবিদ ও পণ্ডিত।
•    ১৯৫০ - রাফায়েল সাবাতিনি, ইতালীয় লেখক।
•    ১৯৯৬ - মার্টি‌ন বেলসাম, মার্কিন অভিনেতা।
•    ২০১২ - হুমায়ুন ফরিদী, বাংলাদেশি অভিনেতা। ১৯৫২ স্লাএর ২৯ মে ঢাকার নারিন্দায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ১৯৭৬ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত নাট্য উৎসবের তিনি অন্যতম সংগঠক ছিলেন। এ উৎসবের মাধ্যমেই তিনি নাট্যাঙ্গনে পরিচিত মুখ হয়ে ওঠেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রাবস্থাতেই তিনি ঢাকা থিয়েটারের সদস্যপদ লাভ করেন। ১৯৯০-এর দশকে হুমায়ুন ফরিদী চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করেন। সেখানেও তিনি বিপুল জনপ্রিয়তা পান। বলা হয়, শ্যুটিং চলাকালে অভিনেতার তুলনায় দর্শকেরা হুমায়ুন ফরিদীর দিকেই আকর্ষিত হতো বেশি। বাংলাদেশের নাট্য ও সিনেমা জগতে তিনি অসাধারণ ও অবিসংবাদিত চরিত্রে অভিনয়ের জন্য স্মরণীয় হয়ে আছেন। ২০০৪ সালে তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। নাট্যাঙ্গনে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠানের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে তাকে সম্মাননা দেয়। ২০১৮ সালে পেয়েছেন মরণোত্তর একুশে পদক। ২০১২ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় এ অভিনেতার মৃত্যু হয়।
•    ২০১৫ - কেশব রেড্ডি, ভারতীয় চিকিৎসক ও লেখক। 

বাংলাদেশ সময়: ০০১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮
এনএইচটি/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ফিচার বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa