[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৬ মাঘ ১৪২৪, ১৯ জানুয়ারি ২০১৮

bangla news

ধামাইল গানে ঐতিহ্যের জয়গান

বদরুল আলম, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০১-১২ ২:০৯:৩২ এএম
ধামাইল গানের একটি মোহনীয় দৃশ্য। ছবি: বাংলানিউজ

ধামাইল গানের একটি মোহনীয় দৃশ্য। ছবি: বাংলানিউজ

হবিগঞ্জ: সিলেট অঞ্চল ভূ-বৈচিত্র্যে যেমন অনন্য, তেমনি এর সংস্কৃতিরও রয়েছে নিজস্ব বহুমাত্রিক ঐতিহ্য। তবে নিয়মিত চর্চা এবং লালনের অভাবে অনেক ঐতিহ্যের অনেক স্বর্ণশস্য হারিয়ে যেতে বসেছে।

সেই হারানো ঐতিহ্য ধরে রাখার প্রয়াস থেকেই চুনারুঘাটে সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘ধামালী’র উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী ‘সিলেটি উৎসব’ শুরু হয়েছে। উৎসবের পরতে পরতে ছিল সিলেটের লোকসঙ্গীতের ঐতিহ্যের জয়গান।

বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারী) রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবু তাহের।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরপরই শুরু হয় সিলেটের ঐতিহ্যবাহী ধামাইল গান ও নাচ। “এ গো আসবে শ্যাম কলিয়া, তোমরা কুঞ্জ সাজাও গিয়া/ এ গো কেনো গো রাই কাঁদিতেছো পাগলীনি হইয়া/ কুঞ্জ সাজাও গিয়া.....”। গানটি শুরু হওয়ার সাথে সাথেই হাড়কাঁপানো শীতকে ভুলে গিয়ে মেতে ওঠেন দর্শকরা। অধিকাংশ দর্শকই ঠোঁট মেলাতে শুরু করেন শিল্পীদের সাথে। একে একে পরিবেশিত হয় আরো বেশ কয়েকটি ধামাইল গান। গানের পাশাপাশি স্থানীয় ধামালি শিল্পীদের নৃত্যও ছিল মনোমুগ্ধকর।

রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত চলে এই ধামালী উৎসব। এরপর একে একে অনুষ্ঠিত হয় বৌ-নৃত্য, কিচ্ছা ও সঙ্গীত। স্থানীয় শিল্পীসহ বিভিন্ন স্থান থেকে আসা কণ্ঠশিল্পীরা পরিবেশন করেন সিলেটি সাধক, বাউলশিল্পী, গীতিকার ও মরমী কবিদের বিভিন্ন লোকসঙ্গীত। রাত ১২টায় সমাপ্তি ঘোষণা করা হয় প্রথম দিনের অনুষ্ঠানের।

আয়োজকরা জানান, উৎসবের ২য় দিন শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) রাতে অনুষ্ঠিত হবে পুঁথিপাঠ, কিচ্ছা, ঘেটু নাচ, সিলেটি বিয়ের গীত, সিলেটি সংস্কৃতি নিয়ে ফ্যাশন শো, লাঠিখেলা, ঝুমুর নাচ, মণিপুরী নৃত্য।

শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) দিনগত রাতে অনুষ্ঠানের সমাপনীতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করবেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী।
বাংলাদেশ সময়:০২০০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০১৮
জেএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa