Alexa
ঢাকা, শুক্রবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৪, ১৮ আগস্ট ২০১৭

bangla news

একটি ইতিবাচক সংবাদ

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৮-১৩ ১২:৫৮:২৬ পিএম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

কয়েক মাসের ঘটনা পর্যালোচনা করলে দেখা যাবে, দেশীয় চলচ্চিত্রে কেবল নেতিবাচক সংবাদ। নিষিদ্ধ করণ, বেফাঁস মন্তব্য, আন্দোলন, মামলা যেন নিত্যসঙ্গী। এবার ঘটলো নজিরবিহীন এক ঘটনা।

চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি, শিল্পী সমিতিসহ ১৮টি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত চলচ্চিত্র পরিবারের সঙ্গে হল মালিক ও বুকিং এজেন্টদের বিরোধের অবসান হয়েছে। শনিবার (১২ আগস্ট) দুইপক্ষের মধ্যে সমঝোতায় স্বস্তি ফিরেছে এফডিসি ও কাকরাইল পাড়ায়।

যৌথ প্রযোজনার নামে প্রতারণামূলক ছবি মুক্তি বন্ধ করা, হল পলিটিক্সের হাত থেকে ইন্ডাস্ট্রিকে রক্ষা করাসহ নানা ইস্যুতে আন্দোলনের ডাক দিয়েছিলো চলচ্চিত্র পরিবার।কর্মসূচির অংশ হিসেবে জুনে সেন্সর বোর্ড ঘেরাও করেছিলো চলচ্চিত্র জোটের নেতাকর্মীরা। সেদিন হল মালিক সমিতির সভাপতি ও সেন্সর বোর্ডের সদস্য নওশাদ ‘লাঞ্ছিত’ হন। এর জেরে হল মালিকরা ঘোষণা দেন রিয়াজ, মিশা সওদাগর ও প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরুর কোনও ছবি দেশের হলে প্রদর্শিত হবে না। পরে সেই বয়কটের তালিকায় পরিচালক নেতা মুশফিকুর রহমান গুলজার, বদিউল আলম খোকন ও শিল্পীদের নেতা জায়েদ খানের নাম শোনা যায়। এতে চলচ্চিত্রের মানুষদের মধ্যে ভেদাভেদের মাত্রা তীব্র হয়। 

এসব ঝামেলা চুকিয়ে অতীতকে পেছনে রেখে আবারও এক ছায়াতলে এসে দাঁড়িয়েছে চলচ্চিত্র পরিবার ও হল মালিক, বুকিং এজেন্ট সমিতি। যাকে কেন্দ্র করে বিরোধ চূড়ান্ত রূপ নিয়েছিলো তিনি নওশাদ। সমঝোতার পর ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেছেন, ‘আমার ওপর হামলার ঘটনায় তারা দুঃখপ্রকাশ করেছেন। চলচ্চিত্রের উন্নয়নের জন্যই নিজেদের মধ্যে বিরোধ রাখতে চাই না। এখন সবাই মিলেমিশে চলচ্চিত্রের উন্নয়নে কাজ করতে চাই।’

১২ আগস্ট রাতে সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদের আমন্ত্রণে তার বাসায় চলচ্চিত্র পরিবারের সদস্য ও চলচ্চিত্র প্রর্দশক সমিতির নেতৃবৃন্দরা বৈঠকে বসেন। সেখানে প্রদর্শক সমিতি ও হল মালিক সমিতির সঙ্গে চলচ্চিত্র পরিবারের সদস্যদের মধ্যেকার দ্বন্দ্বের অবসান হয়। এ ছাড়া  কি কি পদক্ষেপ নেয়া যায়, এ বিষয়েও আলোচনা করেন তারা।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র পরিবারের আহবায়ক অভিনেতা ফারুক, পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন, শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, সহ সভাপতি রিয়াজ ও প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু, চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাজী শোয়েব রশীদ, হল মালিক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ, সুদীপ্ত চৌধুরী,  মিয়া আলাউদ্দীন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৮ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০১৭
এসও 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..
Alexa