Alexa
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ বৈশাখ ১৪২৪, ২৭ এপ্রিল ২০১৭
bangla news
symphony mobile

শয়তান বাসিন্দাদের শেষ খেলায় মিলা!

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০১-২৬ ৬:২১:৫০ এএম
‘রেসিডেন্ট এভিল: দ্য ফাইনাল চ্যাপ্টার’ ছবির পোস্টারে মিলা জোভোভিচ

‘রেসিডেন্ট এভিল: দ্য ফাইনাল চ্যাপ্টার’ ছবির পোস্টারে মিলা জোভোভিচ

ভৌতিক ভিডিও গেম সিরিজ ‘রেসিডেন্ট এভিল’ অবলম্বনে ১৫ বছর আগে নতুন একটি সিরিজ শুরু হয় হলিউডে। ২০১২ সাল পর্যন্ত এই ফ্রাঞ্চাইজির একে একে পাঁচটি ছবি ব্যবসাসফল হয়েছে। এবার আসছে ‘রেসিডেন্ট এভিল’ ছবির ষষ্ঠ পর্ব। এর মাধ্যমে শেষ হচ্ছে সিরিজটি।

২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘রেসিডেন্ট এভিল: রিট্রিবিউশন’ ছবির সিক্যুয়েল হিসেবে ত্রিমাত্রিক প্রযুক্তিতে তৈরি হয়েছে ‘রেসিডেন্ট এভিল: দ্য ফাইনাল চ্যাপ্টার’। এটি সিরিজের ষষ্ঠ ও শেষ পর্ব। কল্পবিজ্ঞানধর্মী অ্যাকশন ভৌতিক ধাঁচের ছবিটির গল্প লিখেছেন ও পরিচালনা করেছেন পল ডব্লিউ. এস. অ্যান্ডারসন। আগের পাঁচটি কিস্তির পরিচালকও ছিলেন তিনি।
 
‘রেসিডেন্ট এভিল: রিট্রিবিউশন’ যেখানে শেষ হয়েছে, তার তিন সপ্তাহ পর থেকে শুরু হয় নতুন গল্প। মৃত কিন্তু জীবিত আত্মার দৌরাত্ম্যে মানবতা টিকিয়ে রাখার শেষ আশা অ্যালিস। তাই সে বন্ধুদের নিয়ে ফিরে যায় রেক্কুন সিটিতে। যেখান থেকে শুরু হয়েছিলো এই মরণখেলা।
 
সুপারহিউম্যানের ক্ষমতা হারানো অ্যালিসের জন্য প্রতিপক্ষের শক্তিশালী আক্রমণ প্রতিহত করে মানবতাকে রক্ষার সবচেয়ে কঠিন মিশন এটি। সিরিজের প্রতিটি ছবিতে অ্যালিস চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিলা জোভোভিচ। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি।
 
মিলা জোভোভিচের কারণেই ছবিটি মুক্তি পেতে দুই বছরেরও বেশি দেরি হলো। ২০১৪ সালের ১২ সেপ্টেম্বর মুক্তি দেওয়ার লক্ষে আগের বছর এর চিত্রায়ন শুরুর কথা ছিলো। কিন্তু পরিচালক পলের এই অর্ধাঙ্গিনী দ্বিতীয়বার সন্তানসম্ভবা হওয়ায় এ পরিকল্পনা বাতিল করা হয়। সিরিজটির অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে একমাত্র তাকেই সব পর্বে দেখা যাচ্ছে।
 
পুরনো কিস্তিগুলোর অন্য তারকাদের মধ্যে আলি লার্টার, আয়ান গ্লেন ও মিলার দ্বিতীয় স্বামী শন রবার্টস ‘রেসিডেন্ট এভিল: দ্য ফাইনাল চ্যাপ্টার’-এ ফিরেছেন। এর মধ্যে অভিনেত্রী আলি লার্টার ২০১০ সালের ছবি ‘রেসিডেন্ট এভিল: আফটার লাইফ’-এর পর আবার অভিনয় করেছেন ক্লেয়ার রেডফিল্ড চরিত্রে। ‘রেসিডেন্ট এভিল: রিভিলেশনস টু’ গেমে ক্লেয়ার রেডফিল্ডকে যে পোশাকে দেখা গেছে, ৪০ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী পরেছেন তেমন একটি।
 
আলি লার্টারই বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে নিশ্চিত করেছেন, এটাই সিরিজের শেষ পর্ব। অবশ্য ‘রেসিডেন্ট এভিল: রিট্রিবিউশন’ ছবিতেই আভাস দেওয়া হয়েছে পরের কিস্তিতে শেষ হবে এই ফ্রাঞ্চাইজি।
 
দক্ষিণ আফ্রিকার বেলহারে ২০১৫ সালের ১০ ডিসেম্বর ছবিটির শেষ দিনের চিত্রায়ন হয়। সেদিন কেপটাউনে সম্মেলনে অংশ নিতে উপস্থিত বেশ কয়েকজন ইউটিউবার এই পর্বে জোম্বির ভূমিকায় অভিনয়ের সুযোগ পায়।
 
আগের পাঁচ ছবির জনপ্রিয় চরিত্র লিওন এস. কেনেডি, জিল ভ্যালেন্টাইন, ক্রিস রেডফিল্ড ও অ্যাডা ওঙ নতুনটিতে নেই। এ নিয়ে ভক্তরা ভীষণ হতাশ। তবে ব্যবসায়িক সাফল্যের কথা ভেবেই নাকি তাদেরকে বাদ রাখা হয়েছে। নতুন প্রজন্মের দর্শকদের প্রেক্ষাগৃহে আনতে আনকোড়া, নবীন ও বিখ্যাত অভিনয়শিল্পীদের সম্মিলন ঘটিয়েছেন নির্মাতারা। রুবি রোজ, ইওয়েন ম্যাকেন, উইলিয়াম লেভি, লি জুন-জি তাদেরই কয়েকজন।
 
সনির স্ক্রিন জেমস স্টুডিওর পরিবেশনায় শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পাবে ‘রেসিডেন্ট এভিল: দ্য ফাইনাল চ্যাপ্টার’। এর তিন দিন আগেই জাপানিজ ভিডিও গেম নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ক্যাপকম বাজারে এনেছে ভিডিও গেম সিরিজটির নতুন কিস্তি ‘রেসিডেন্ট এভিল: বায়োহ্যাজার্ড’। প্রথম ‘রেসিডেন্ট এভিল’ গেম প্রকাশিত হয় ১৯৯৬ সালে।
 
সিরিজটির এক পর্বের সঙ্গে অন্য পর্ব মুক্তির ক্ষেত্রে এবারই প্রথম চার বছরের বেশি সময় নেওয়া হলো। নতুন ছবির দৈর্ঘ্য ১ ঘণ্টা ৪৬ মিনিট। আগের পাঁচ পর্বের চেয়ে এর ব্যাপ্তিই সবচেয়ে বেশি। আয়টা বেশি হলেই হয়! যদিও ‘রেসিডেন্ট এভিল: দ্য ফাইনাল চ্যাপ্টার’ বক্স অফিস কাঁপালে মোটেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না!
 
* ‘রেসিডেন্ট এভিল: দ্য ফাইনাল চ্যাপ্টার’ ছবির ট্রেলার:
 
বাংলাদেশ সময়: ০৬১৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০১৬
জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..