ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ কার্তিক ১৪২৪, ১৭ অক্টোবর ২০১৭

bangla news
ঢালিউড ২০১৭

আগাম আলোচনায় আশা জাগানিয়া ছবিগুলো

জনি হক, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০১-০৫ ১:৫৩:৫৭ এএম
‘ডুব’ ছবিতে ইরফান খান ও নুসরাত ইমরোজ তিশা

‘ডুব’ ছবিতে ইরফান খান ও নুসরাত ইমরোজ তিশা

পুরনো বছরের হিসাব-নিকাষ শেষে শুরু হলো নতুন বছর। চলচ্চিত্রাঙ্গনে কেমন যাবে ২০১৭? আশা জাগানিয়া কথা হলো, প্রশংসা কুড়ানোর পাশাপাশি ব্যবসায়িক সাফল্যও পেতে পারে এমন বেশ কয়েকটি ছবি এ বছর মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে।

২০১৬ সালে গতানুগতিক নাচ, গান, কমেডি ও অ্যাকশননির্ভর ছবিগুলোর চেয়ে নতুন নতুন ঢঙে বলা গল্পের প্রতি দর্শকদের আগ্রহ ছিলো ইতিবাচক। অমিতাভ রেজা চৌধুরীর ‘আয়নাবাজি’ সবচেয়ে উজ্জ্বল উদাহরণ। নতুন ইংরেজি বছরে এই চিত্র আরও পাকাপোক্ত হবে বলে আশা করা যায়। কোন ছবিগুলো আশা জাগাচ্ছে সেগুলো টুকরো তথ্য রইলো এখানে।

ডুব
২০১৭ সালে দেশীয় চলচ্চিত্রে সবচেয়ে আলোচিত ছবি হতে যাচ্ছে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ‘ডুব’। বলিউড অভিনেতা ইরফান খান অভিনয় করায় এটি নিয়ে এমনিতেই দর্শকদের ব্যাপক আগ্রহ। তার ওপর গুঞ্জন ছড়িয়েছে, প্রয়াত কথাশিল্পী ও নির্মাতা হুমায়ূন আহমেদের জীবন অবলম্বনে তৈরি হয়েছে ছবিটি। সব মিলিয়ে ‘ডুব’ যে কৌতূহলের কেন্দ্রে থাকবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

‘ডুব’-এর কাহিনি আসলে কেমন? এর উত্তর পাওয়া যাবে এটি মুক্তি পেলে। এ ছবির ইংরেজি নাম ‘নো বেড অব রোজেস’। এতে আরও অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, রোকেয়া প্রাচী ও কলকাতার পার্নো মিত্র। ‘ডুব’ যৌথভাবে প্রযোজনা করছে জাজ মাল্টিমিডিয়া, ভারতের এসকে মুভিজ ও ইরফান খান।

স্বপ্নজাল
‘ডুব’-এর পর এ বছর সবচেয়ে বেশি আলোচনা সৃষ্টি করতে পারে ‘স্বপ্নজাল’। কারণ এটি পরিচালনা করেছেন ‘মনপুরা’র গিয়াসউদ্দিন সেলিম। এর মাধ্যমে নিজের আগের ছবির সাফল্যকে তিনি ছাড়িয়ে যেতে পারবেন কি-না তা দেখতে উদগ্রীব দর্শকরা। এতে চিত্রনায়িকা পরিমনির সঙ্গে অভিনয় করেছেন নবাগত ইয়াশ রোহান। তাদেরকে দেখা যাবে শুভ্রা ও অপু চরিত্রে।

ছবিটিতে আরও অভিনয় করছেন ফজলুর রহমান বাবু, শাহানা সুমী, শহিদুল আলম সাচ্চু, শিল্পী সরকার অপু, ইরফান সেলিম, মিশা সওদাগর, ফারহানা মিঠু, ইরেশ যাকের, মুনিয়া, শাহেদ আলী, আহসানুল হক মিনু প্রমুখ।

হালদা
২০১৬ সালে ‘অজ্ঞাতনামা’র সুবাদে দেশ-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছেন পরিচালক তৌকীর আহমেদ। এবার তিনি পরিচালনা করছেন ‘হালদা’। এই নামে চট্টগ্রামের নদীটিকে ঘিরেই ছবিটির গল্প। এতে প্রধান তিনটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন জাহিদ হাসান, মোশাররফ করিম ও নুসরাত ইমরোজ তিশা।

চট্টগ্রামের বিপন্ন হালদা নদী ও এর দুই পাড়ের জেলে ও গ্রামবাসীর জীবনের প্রতিকূলতা, হাসি-কান্না, বেদনাকে ঘিরেই ছবিটির গল্প। এতে আরও আছেন রুনা খান, ফজলুর রহমান বাবু, দিলারা জামান, শাহেদ আলী প্রমুখ। ‘হালদা’ প্রযোজনা করছে আমরা ক’জন। ছবিটির গল্প লিখেছেন আজাদ বুলবুল।

ভয়ংকর সুন্দর
‘জিরো ডিগ্রী’র পর অনিমেষ আইচ পরিচালিত নতুন ছবি হিসেবে আসছে ‘ভয়ঙ্কর সুন্দর’। তিনি নির্মাণ করেছেন বলেই এটি আলোচনায় থাকবে। তার হাত ধরে প্রথমবার ঢাকার ছবিতে অভিনয় করেছেন কলকাতার পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। এর মাধ্যমে বড়পর্দায় অভিষেক হচ্ছে ছোটপর্দার অভিনেত্রী ভাবনার।

‘ভয়ংকর সুন্দর’কে বলা হচ্ছে সাইকোলজিক্যাল ড্রামা। এর ইংরেজি নাম ‘কিলিং বিউটি’। তাই ট্যাগলাইন রাখা হয়েছে- ‘হোয়েন বিউটি কাম ডেঞ্জারাস’। ভারতীয় লেখক মতি নন্দীর ‘জলের ঘূর্ণি ও বকবক শব্দ’ অবলম্বনে তৈরি হয়েছে এর চিত্রনাট্য।

ছবিটিতে আরও অভিনয় করেছেন হাসান ইমাম, খায়রুল আলম সবুজ, লুৎফর রহমান জর্জ, ফারহানা মিঠু, ফারুক আহমেদ, শিল্পী সরকার অপু, অ্যালেন শুভ্র ও মাহমুদুল ইসলাম।

ভুবন মাঝি
ফাখরুল আরেফিনের পরিচালনায় সরকারি অনুদানে নির্মিত ‘ভুবন মাঝি’ ছবিতেও অভিনয় করেছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। এতে অপর্ণা ঘোষকে দেখা যাবে সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের মেয়ে ফরিদা চরিত্রে। এ ছাড়াও আছেন মাজনুন মিজান, মামুনুর রশীদ, নওশাবা, সুষমা সরকার। লালন সাঁইয়ের ভাবাদর্শ অনুসারী বাংলাদেশের নহির বাউলের মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকে ঘিরেই সাজানো এর গল্প।

অন্যান্য
অন্যরকম গল্পের ছবির মধ্যে নাসিরউদ্দীন ইউসুফের ‘আলফা’ (দোয়েল), নূরুল আলম আতিকের ‘পেয়ারার সুবাস’ (জয়া আহসান), আকরাম খানের ‘খাঁচা’ (জয়া আহসান), ওয়াহিদ তারেকের ‘আলগা নোঙর’ (নওশাবা), হাসিবুর রেজা কল্লোলের ‘সত্তা’ (শাকিব খান, পাওলি দাম), এন. রাশেদ চৌধুরীর ‘চন্দ্রাবতী কথা’ (দোয়েল) প্রশংসিত হতে পারে দর্শকমহলে।  

বাণিজ্যিক ছবির ডালি
নতুন বছরে ব্যবসায়িক সাফল্যের জন্য গতানুগতিক ছবির দিকেই তাকিয়ে থাকবেন সংশ্লিষ্টরা। এর মধ্যে আলোচনা তৈরি করতে পারে আব্দুল আজিজ ও জয়দেব মুখার্জি পরিচালিত ‘নবাব’ (শাকিব খান, শুভশ্রী), মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের ‘তুমি যে আমার’, শামীম আহমেদ রনির ‘ধ্যাততেরিকি’ (আরিফিন শুভ, নুসরাত ফারিয়া, রোশান, নবাগতা ফারিন), জাকির হোসেন রাজুর ‘প্রেমী ও প্রেমী’ (আরিফিন শুভ, নুসরাত ফারিয়া) ও ‘ভালো থেকো’ (আরিফিন শুভ, তানহা তাসনিয়া), ইফতেখার চৌধুরীর ‘বিজলী’ (ববি, নবাগত রণবীর)।

এ তালিকায় আরও রয়েছে তানিম রহমান অংশুর ‘স্বপ্নবাড়ি’ (আনিসুর রহমান মিলন, জাকিয়া বারী মম) ও ‘আদি’ (এবিএম সুমন, শায়লা সাবি), দীপঙ্কর দীপনের ‘ঢাকা অ্যাটাক’ (আরিফিন শুভ, মাহিয়া মাহি), আশিকুর রহমানের ‘অপারেশন অগ্নিপথ’ (শাকিব খান, শিবা আলী খান), স্বপন আহমেদের ‘পরবাসিনী’ (ইমন, বলিউড অভিনেত্রী রিত মজুমদার), হিমেল আশরাফের ‘সুলতানা বিবিয়ানা’ (বাপ্পি, আঁচল), মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘এতো প্রেম এতো মায়া’ (ফেরদৌস, শাবনূর, সাইমন, পিয়া বিপাশা), সৈকত নাসিরের ‘পাষাণ’ (বিদ্যা সিনহা মিম, ওম), অনন্য মামুনের ‘বন্ধন’ (স্পর্শীয়া, শিপন মিত্র), রয়েল খানের ‘গেম রিটার্নস’ (নিরব, তমা মির্জা), শামীমুল ইসলাম শামীমের ‘গোলাপতলীর কাজল’ (সাইমন, মাহিয়া মাহি, আসিফ নূর)।

বাংলাদেশ সময়: ০০২৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৫, ২০১৭
জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa