[x]
[x]
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২২ মে ২০১৮

bangla news

বড় ঋণে বেশি ঝুঁকছে ব্যাংক

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-০৮ ৬:০০:৩৩ পিএম
বিআইবিএম-এর অনুষ্ঠানে অতিথিরা। ছবি: বাংলানিউজ

বিআইবিএম-এর অনুষ্ঠানে অতিথিরা। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: গত কয়েক বছর ধরে বড় ঋণের দিকে ব্যাংকগুলো বেশি ঝুঁকছে।  সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, ব্যাংকগুলোর মোট ঋণের প্রায় সাড়ে ৫৭ শতাংশই বড় ঋণ। 

মঙ্গলবার (০৮ মে) বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এমনটাই দেখা গেছে। 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের ৪০ শতাংশ, বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকের ৬৫ শতাংশ, বিশেষায়িত ব্যাংকের ৪৭ শতাংশ এবং বিদেশি বাণিজ্যিক ব্যাংকের ৭৩ শতাংশ বড় ঋণ বিতরণ করা হয়েছে। ২০১৬ সালে ব্যাংকগুলোর মোট ঋণের ৫৮ শতাংশ ছিল বড় ঋণ। যা অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনীতির পথে বাধা সৃষ্টি করছে।

রাজধানীর মিরপুরে বিআইবিএম অডিটোরিয়াম ও বাংলাদেশ ব্যাংকের রাজশাহী কার্যালয়ে ‘ক্রেডিট অপারেশনস অব ব্যাংকস’ শীর্ষক বার্ষিক পর্যালোচনা কর্মশালায় এ গবেষণা প্রতিবেদন তুলে ধরা হয়। 

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর ও বিআইবিএম নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান আবু হেনা মোহা. রাজী হাসান। কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন বিআইবিএম-এর মহাপরিচালক (চলতি দায়িত্বে) ড. শাহ মো. আহসান হাবীব। 

স্বাগত বক্তব্যে আয়োজনের উদ্দেশ্য বিশ্লেষণের মধ্য দিয়ে ঢাকার বিআইবিএমে অনুষ্ঠানটি শুরু করেন মহাপরিচালক ড. শাহ মো. আহসান হাবীব।

বিআইবিএম-এর কর্মশালায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংকের রাজশাহী কার্যালেয়ের নির্বাহী পরিচালক এ কে এম ফজলুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংক রাজশাহী কার্যালয়ের দুই মহাব্যবস্থাপক নুরুন নাহার এবং এ এফ এম শাহীনুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিআইবিএম-এর মুজাফফর আহমেদ চেয়ার প্রফেসর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড. বরকত-এ-খোদা, পূবালী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং বিআইবিএম-এর সুপারনিউমারারি অধ্যাপক হেলাল আহমদ চৌধুরী, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক এবং বিআইবিএমের সুপারনিউমারারি অধ্যাপক ইয়াছিন আলি, সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ ওয়াসেক মো. আলী এবং এনআরবি ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেহমুদ হোসেন। 

কর্মশালায় গবেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন বিআইবিএম-এর অধ্যাপক এবং পরিচালক (গবেষণা, উন্নয়ন এবং পরামর্শ) ড. প্রশান্ত কুমার ব্যানার্জ্জীর নেতৃত্বে ৬ সদস্যের একটি দল। গবেষণা দলে ছিলেন বিআইবিএম-এর সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ সোহেল মোস্তফা, সহযোগী অধ্যাপক অতুল চন্দ্র পন্ডিত, সহকারী অধ্যাপক তাহমিনা রহমান, প্রভাষক সাদমিনা আমির এবং জনতা ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ইসমাইল হোসেন। 

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫২ ঘণ্টা, মে ০৮, ২০১৮
এসই/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa