আমে কেমিক্যাল পেলেই কঠোর ব্যবস্থা
[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৫, ১৯ আগস্ট ২০১৮
bangla news

আমে কেমিক্যাল পেলেই কঠোর ব্যবস্থা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-০৭ ৯:৩৯:৩২ পিএম
বক্তব্য রাখছেন রাজশাহীর জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম আব্দুল কাদের। ছবি: বাংলানিউজ

বক্তব্য রাখছেন রাজশাহীর জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম আব্দুল কাদের। ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী: রাজশাহীর আমে কেমিক্যাল পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম আব্দুল কাদের।

সোমবার (০৭ মে) বিকেলে রাজশাহীর আম চাষি ও ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়ন ভূমি কার্যালয় মাঠে ফরমালিন, কার্বাইডমুক্ত ও পরিপক্ক আম বাজারজাত নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে স্থানীয় আম চাষি ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ডিসি।

সভায় রাজশাহী জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদের বলেন, ‘যেসব আড়তদাররা আম চাষিদের বিভিন্নভাবে হয়রানী করবে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অতীতে কেউ যদি আমে ফরমালিন ব্যবহার করে বাজারজাত করে থাকেন তারা সতর্ক হয়ে যান। না হলে পরিণাম ভালো হবে না।’

জেলা প্রশাসক বলেন, 'রাজশাহীর চাষি ও ব্যবসায়ীরা কখনও আমে কেমিক্যাল ব্যবহার করেন না। তবে মৌসুম এলে কেউ কেউ করার চেষ্টা করেন। তাদের জন্য যেনো রাজশাহীর দুর্নাম না হয় সেদিকে সব চাষি ও ব্যবসায়ীদের নজরদারী করতে হবে। কেউ অসদুপায় অবলম্বন করলে সরাসরি আমাকে জানাবেন। আমি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবো'।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক বলেন, প্রতিবছর রাজশাহীর আম সারাদেশে যায়। বিপুল পরিমাণ আম বিদেশেও রফতানি করা হয়। কারণ দেশের বাইরে রাজশাহীর আমের ব্যাপক চাহিদা। তাই আম রাজশাহীর কয়েকটি উপজেলার প্রধান অর্থকরী ফসল। এই আমের রাজধানীতে ধস নামাতে কেউ যেনো ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মিথ্যা প্রচারণা না চলাতে পারে সে ব্যাপারেও সতর্ক থাকার আহ্বান জানান জেলা প্রশাসক।

জেলা প্রশাসক আব্দুল কাদের বলেন, ‘বানেশ্বর আমহাট রাজশাহী জেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় হাট। এখানে জেলার পুঠিয়া, দুর্গাপুর, চারঘাট, বাঘাসহ কয়েকটি উপজেলার আম চাষিরা আম বেচা-কেনা করেন। আমচাষিদের যেন কোনোভাবে হয়রানীর শিকার হতে না হয় এমনকি ওজনে কম বা বেশি নিলে, ব্যবসায়ীদের কাছে কেউ চাঁদা চাইলে আম পরিবহনে সড়কে কোনো সংস্থার দ্বারা কেউ হয়রানী হলে সরাসরি তাদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়ায় আশ্বাস দেন তিনি।

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবদুল্লাহ আল মাহমুদ।

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম, চারঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাইদ চাঁদ, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকিল উদ্দিন আহম্মেদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সালাউদ্দিন আল ওয়াদুদ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মুনজুর রহমান ও বানেশ্বর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গাজী সুলতান। এছাড়া রাজশাহীর কয়েকটি উপজেলার আমচাষি ও আম ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, ‘বানেশ্বর আম হাট বসলে আইন-শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ, র‌্যাব, আনসারসহ কয়েকটি বাহিনী নিয়োজিত থাকবে। আর প্রতিদিন মাঠে থাকবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। থাকবে হেল্প ডেস্ক ও অভিযোগ বক্স। সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জেল জরিমানার ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে বলেও জানান ইউএনও

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৮ ঘণ্টা, মে ০৭, ২০১৮
এসএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa