[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

একটা লন, লাভ হবে! লিয়ে যান, লাভ হবে!

মহসিন হোসেন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০১-০৬ ১০:৫৪:০৬ এএম
মেলায় আগতদের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করছেন দিল্লি থেকে আসা যুবক ফারহান

মেলায় আগতদের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করছেন দিল্লি থেকে আসা যুবক ফারহান

বাণিজ্য মেলা থেকে: একটা লন, লাভ হবে! লিয়ে যান, লাভ হবে! এভাবেই ভাঙা ভাঙা বাংলায় উচ্চকণ্ঠে মেলায় আগতদের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করছেন দিল্লি থেকে আসা যুবক ফারহান।

ভারতীয় নাগরিক ফারহান এবারই প্রথম বাংলাদেশে এসেছেন। সেলসম্যানের কাজ করেন বিদেশি প্যাভিলিয়নের দুই নম্বর স্টলে। তার পেছনে দাঁড়িয়ে আছেন দু’জন বাংলাদেশি নারী সেলসম্যান। 

ফারহানের নানা অঙ্গভঙ্গি ও উচ্চকণ্ঠ দর্শনার্থীদের টেনে নিচ্ছে স্টলের দিকে। অনেকেই কাছে এসে কৌতূহল নিয়ে বোঝার চেষ্টা করছেন ব্যাপারটা? 

দেখা গেল যন্ত্রের সাহায্যে আলু, পেঁয়াজ, গাজর, টমেটো কেটে স্টলের সামনের টেবিলে স্তূপ করছেন ফারহান। সবজি কাটা হয়ে গেলে একটি পলিথিনের ব্যাগের মধ্যে রাখা সাত-আটটি আইটেম দেখিয়ে ক্রেতাদের উদ্দেশ্যে বলছেন, এটা নিয়ে যান, লাভবান হবেন। দাম মাত্র ৫০০ টাকা! 

বাংলা না বোঝায় তার সঙ্গে কথা বলতে হলো হিন্দিতে। তিনি বললেন, রান্না ঘরের সবজি কাটার জন্য এসব যন্ত্র খুবই উপকারী। যিনি কিনবেন তিনি ঠকবেন না। বরং লাভবান হবেন।

কথা শেষে আবার সবজি কেটে দেখিয়ে দিচ্ছেন এ যন্ত্র দিয়ে কিভাবে কাটতে হয়। একটা যন্ত্র দিয়ে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে কয়েকভাবে কাটা হচ্ছে আলু। কাটার পর আলুগুলো অনেকটা গ্রামে তৈরি পিঠার মতো দেখাচ্ছে। 

আবার ভাজি কিংবা ফ্রেঞ্চ ফ্রাইয়ের জন্য যেভাবে আলু কাটার পদ্ধতি আলাদা। সেটাও দেখিয়ে দিচ্ছেন ফারহান। এ পদ্ধতিতে সময়ও লাগছে খুব কম। অন্য একটি যন্ত্রের ভিতর পেঁয়াজ ঢুকিয়ে চাপ দিচ্ছেন, সঙ্গে সঙ্গে সেগুলো কেটে টুকরো টুকরো হয়ে যাচ্ছে। 

অনেকেই আগ্রহী হয়ে ফারহানের যন্ত্র কিনছেন। আর যারা কিনছেন না, তারা কম করে হলেও এখানে পাঁচ থেকে দশ মিনিট দাঁড়িয়ে দেখছেন ফারহানের কাণ্ড।

ফারহান বলেন, আট পিচের একটি প্যাকেজের দাম ৫০০ টাকা। যার মধ্যে রয়েছে আলু ও গাজর স্লাইস করার একটি যন্ত্র। আরও আছে পেঁয়াজ, টমেটো, সিদ্ধ ডিম স্লাইস করার যন্ত্র এবং একটি চাকু।
 
একই ধরনের যন্ত্র বিক্রি করতে দেখা গেলো বাংলাদেশি একটি স্টলে। দোকানের নাম রেমিক্স। স্টল নম্বর- ১৬০। সেলসম্যান দেলোয়ার হোসেন মুখে মাইক্রোফোন লাগিয়ে হাতে কাটার যন্ত্র নিয়ে আলু, গাজর, টমেটো পেঁয়াজ কেটে দেখাচ্ছেন দর্শনার্থীদের।

দেলোয়ার বললেন, এসব আইটেম ভারত থেকে আমদানি করা হয়েছে। শুধু মেলায়তেই পাওয়া যাবে। অন্য কোথাও শোরুম নেই। সারাদেশে যেখানেই মেলা হয়, সেখানেই স্টল নিয়ে এসব বিক্রি করেন তিনি।

দেলোয়ারের কাছে রয়েছে হাতে চালিত জুস মেকার। এর মূল্য এক হাজার টাকা। সঙ্গে ফ্রি দেওয়া হচ্ছে ৩০০ টাকা দামের একটি ভেজিটেবল কাটার ও ১৫০ টাকা দামের একটি হ্যান্ড ব্লেন্ডার। তাছাড়া, পেঁয়াজ কাটার ও আলু স্লাইস করার যন্ত্র বিক্রি হচ্ছে এক হাজার টাকায়। 

বাংলাদেশ সময়: ২১০৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৬, ২০১৮
এমএইচ/এনএইচটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa