[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৯ নভেম্বর ২০১৭

bangla news

কৃষক কাটছে ধান মনে আনন্দের বান...

সৌমিন খেলন, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-১১-১৫ ৩:৩২:৩৪ এএম
কৃষক কাটছে ধান মনে আনন্দের বান...

কৃষক কাটছে ধান মনে আনন্দের বান...

নেত্রকোনা : প্রাকৃতিক দুর্যোগের শঙ্কা আর ভয় কাটিয়ে অবশেষে আমন ধানে কাস্তে লাগাতে পেরে কৃষকের মনে এখন আনন্দের বন্যা বইছে। জেলা সদরসহ নেত্রকোনার দশ উপজেলায় কৃষকরা মনের আনন্দে ধান কাটা শুরু করেছেন। 
নতুন ধান ঘরে নিয়ে গোলাভর্তি করলে তবেই পূরণ হবে কৃষকের স্বপ্ন। দুর্গাপুর, কলমাকান্দা, পূর্বধলা উপজেলা ও সদরের বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে কৃষকের ধান কাটা ও তাদের মনের আনন্দের বন্যা দেখা যাচ্ছে। 

ধান কাটা শেষ হলেই নতুন চাল দিয়ে গ্রামাঞ্চলের প্রতিটি ঘরে ঘরে তৈরি হবে দেশীয় নানারকম পিঠা। সেই সময়কে ছুঁতে কৃষাণ-কৃষাণিরা ধান কাটা, মারাই ও সেদ্ধ করতে এখন হাড় ভাঙা পরিশ্রম করছেন। 

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) সকালে সরেজমিনে কথা হয় মাঠে কাজ করা কয়েক কৃষকের সঙ্গে। 

কৃষক লাল মিয়া বাংলানিউজকে বলেন, এইবার অকাল বন্যায় যা সর্বনাশ করছে! আমন ঘরে তুলতে পারি কি না এই ভাবনায় কুব (খুব) ডরে আচলাম (ভয়ে ছিলাম)। শ্রমিক বাহার মিয়া বলেন, কয়েকটা ফসল মাইর গেছে এতে আমরা যারা শ্রমিক তারাও তো বেকায়দায় পড়েছি। কাজকাম আর ট্যাহা কোনোডাই তো আছিন (ছিলো) না। ফজলু মিয়া বলেন, অতীত চিন্তা করলে তো আর লাভ নেই। এখন আল্লাহ্র কাছে শুকরিয়া জানাই তিনি অন্তত এই ফসলডা আমরারে ঘরে তোলার ব্যবস্থা করে দিলেন। 
কৃষক কাটছে ধান মনে আনন্দের বান...এদিকে আমন ধান কাটাকে কেন্দ্র করে নেত্রকোনা সদর উপজেলা ও জেলা প্রশাসন নবান্ন উৎসবের আয়োজন করেছে। বুধবার (১৫ নভেম্বর) সকাল ৯টায় সদরের কাইলাটী ইউনিয়নের কাওয়ালীকোণা গ্রামে উৎসব শুরু হবে। জেলা প্রশাসক (ডিসি) ড. মুশফিকুর রহমান, পুলিশ সুপার (এসপি) জয়দেব চৌধুরী, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম কামরুল হাসান শাহিনসহ সামাজিক, রাজনৈতিক ও সরকারি বেসরকারি দপ্তরের বিভিন্ন পর্যায়ের মানুষ একসঙ্গে কাস্তে হাতে ধান কেটে উৎসবের শুরু করবেন। 

চেয়ারম্যান শাহিনের বাড়িতে প্রতিবছর উৎসবের আয়োজন করা হয়। পরে এ উপলক্ষে নতুন চালের তৈরি বাহারি রকমের গ্রামীণ পিঠা পায়েস তৈরি করে গ্রামবাসীসহ আমন্ত্রিত সকলের সামনে পরিবেশন করেন বাড়ির নারী-পুরুষরা। চেয়ারম্যান শাহিন বাংলানিউজে জানান, ‘এই হেমন্তে কাটা হবে ধান, আবার শূন্য গোলায় ডাকবে ফসলের বান-পৌষপার্বণে প্রাণ-কোলাহলে ভরবে গ্রামের নীরব শ্মশান’ শ্লোগানে নবান্ন উৎসব-১৪২৪ শুরু হবে।

এদিন সকলের প্রাণবন্ত গল্প-আড্ডা, গান আর নানারকম সাংস্কৃতিক পরিবেশনার আয়োজন করা হয়েছে। এই উৎসব আনন্দে সরকারি সকল দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী থেকে শুরু করে সমাজের সকল শ্রেণীর মানুষ অংশ নেবেন জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৫, ২০১৭
বিএস 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa