Alexa
ঢাকা, সোমবার, ১৩ চৈত্র ১৪২৩, ২৭ মার্চ ২০১৭
bangla news
symphony mobile

ডিএসই’র ৪ প্রার্থীর আমলনামা

মাহফুজুল ইসলাম, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৩-২১ ১০:২৯:৪২ এএম
শরীফ আতাউর রহমান, মো. মিজানুর রহমান খান, মো. হানিফ ভূঁইয়া ও খাজা আসিফ আহমেদ

শরীফ আতাউর রহমান, মো. মিজানুর রহমান খান, মো. হানিফ ভূঁইয়া ও খাজা আসিফ আহমেদ

ঢাকা: মঙ্গলবার (মার্চ ২১) প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) শেয়ার হোল্ডার পরিচালক নির্বাচন। এ নির্বাচনে দুই পরিচালক পদের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন চার প্রার্থী। নির্বাচনে জয়ের প্রত্যাশায় ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। এদের মধ্যে দু’জন প্রবীণ ও দু’জন তরুণ।

প্রতিযোগীরা হলেন- স্যার সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) শরীফ আতাউর রহমান, রেপিড সিকিউরিটিজের এমডি মো. হানিফ ভূঁইয়া, ধানমণ্ডি সিকিউরিটিজের এমডি মো. মিজানুর রহমান খান ও কান্ট্রি স্টকের এমডি খাজা আসিফ আহমেদ। তারা বর্তমান শেয়ার হোল্ডার পরিচালক খাজা গোলাম রসুল ও মোহাম্মদ শাহজাহানের জায়গায় দায়িত্ব পালন করবেন।

এ চার প্রার্থীর মধ্যে শুধু শেয়ার ব্যবসা করেন স্যার সিকিউরিটিজের এমডি শরীফ আতাউর রহমান। পুঁজিবাজারে সুপরিচিত প্রার্থীর ব্রোকারেজ হাউজটির লেনদেনের দিক থেকে ডিএসইতে অবদান ৬১তম। প্রবীণ এ ব্যক্তি ১৯৮০ সালে ব্যবসা শুরুর পর ১৯৯৭ সালে ডিএসই মেম্বারস ক্লাবের প্রথম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।
 
এরপর থেকে (২০০১-২০০৪ সাল পর্যন্ত) ডিএসইর কাউন্সিলর, (২০০৬-২০০৭ সালের মার্চ পর্যন্ত) পরিচালক এবং (২০০৭-২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত) ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সর্বশেষ (২০১০ সালের মার্চ থেকে ২০১৩ সালের জুন পর্যন্ত) পরিচালক হিসেবে দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন।
 
অপর প্রবীণ প্রার্থী মিজানুর রহমান ধানমণ্ডি সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। সর্বশেষ তিনি ডিএসইর সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। লেনদেনের দিক থেকে ডিএসইতে তার প্রতিষ্ঠানের অবদান ১১১তম। তিনি ২০০৫ সালে ডিএসইর সদস্য হন। এরপর তিনি ডিএসইর পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

মিজানুর রহমান ১৯৮২-২০০৭ সাল পর্যন্ত ডিএসইসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ইন্টেরিয়র ডিজাইন প্রণয়ন করেন। তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক নির্বাহী প্রকৌশলী।
 
পুঁজিবাজারের তরুণ ও কর্মঠ ব্যক্তিত্বের মধ্যে হানিফ ভূঁইয়া অন্যতম। তিনি রেপিড সিকিউরিটিজ লিমিটেডের এমডি। ১৯৯৫ সালে ডিএসইর সদস্য লাভের পর (২০০২-২০০৫ সাল পর্যন্ত) তিন বছর ডিএসইর পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ২০১২ সালে দ্বিতীয় দফায় পরিচালক হিসেবে নির্বাচিত হয়ে ২০১৩ সালের জুন পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। শেয়ার ব্যবসার পাশাপাশি তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ডিএসইতে লেনদেনে হাউজটির অবদান ৪৮তম স্থানে।
 
সবচেয়ে কম বয়সের অপর প্রার্থী হলেন- কান্ট্রি স্টকের এমডি খাজা আসিফ আহমেদ। তিনি সম্প্রতি ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ডিবিএ) নির্বাচনে ১৭৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। উত্তরাধিকার সূত্রে প্রতিষ্ঠানের এমডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।
 
ডিএমসইর তথ্য মতে, ডিএসই ভবনের নীচ তলায় মঙ্গলবার (২১ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টা ভোট গ্রহণ শুরু হবে। ভোট গণনা শেষ হবে বিকেল ৪টায়। ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করবেন নির্বাচন কমিশন।

সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি মো. আবদুস সামাদের নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশনের বাকি সদস্যরা হলেন- সিকিউরিটিজ লিমিটেডের এমডি হারুন-উর-রশিদ ও এম অ্যান্ড জেড সিকিউরিটিজের এমডি এম মনজুর উদ্দিন আহমেদ। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করা হবে ডিএসইর ৫৫তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম)।
 
বাংলাদেশ সময়: ১০১৮ ঘণ্টা, মার্চ ২১, ২০১৭
এমএফআই/আরবি/আরআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..