ঢাকা, শুক্রবার, ৪ কার্তিক ১৪২৪, ২০ অক্টোবর ২০১৭

bangla news

রবির স্বপ্নে বুক বেঁধে খরিপের সবজি নিয়ে মাঠে চাষিরা

বেলাল হোসেন, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৩-১৪ ৪:২২:৫১ এএম
রবির স্বপ্নে বুক বেঁধে খরিপের সবজি নিয়ে মাঠে চাষিরা। ছবি: আরিফ জাহান

রবির স্বপ্নে বুক বেঁধে খরিপের সবজি নিয়ে মাঠে চাষিরা। ছবি: আরিফ জাহান

বগুড়ার গ্রামীণ জনপদ ঘুরে: বিদায় নিচ্ছে সীম, ফুলকপি, বাঁধাকপিসহ রবি মৌসুমের বিভিন্ন ধরনের শাক-সবজি। খরিপ মৌসুমের সবজি চাষে মাঠে নেমেছেন চাষিরা। 

এবার রবি মৌসুমের সবজি বিক্রিতে চাষিরা ভালো দাম পেয়েছেন। গত কয়েক বছরের মধ্যে এ বছর সবজি বিক্রি করে চাষিরা বেশ লাভবানও হয়েছেন। তাই রবির স্বপ্নে বুক বেঁধে খরিপের সবজি নিয়ে চাষিরা মাঠে এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। অনেকেই খেত পরিষ্কার করছেন। আগামজাতের সবজির খেত পরিচর্যা করছেন কেউ-কেউ। 

আবার কেউবা নতুন মৌসুমের সবজি লাগাতে জমি প্রস্তুততে মগ্ন। একইভাবে সবজির বীজতলা পরিচর্যা নিয়েও আছে কারো-কারো ব্যস্ত‍তা। বগুড়ার সবজিখ্যাত কয়েকটি উপজেলার গ্রামীণ জনপদ ঘুরে খরিপ-১ মৌসুমের সবজি নিয়ে চাষিদের কর্মযজ্ঞতার এমন চিত্র লক্ষ্য করা যায়।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালকের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, সদর, শাজাহানপুর, শেরপুর, নন্দীগ্রাম, ধুনট, গাবতলী, শিবগঞ্জ উপজেলার চাষিরা রকমারি সবজি চাষে এগিয়ে রয়েছেন।রবির স্বপ্নে বুক বেঁধে খরিপের সবজি নিয়ে মাঠে চাষিরা। ছবি: আরিফ জাহানএরমধ্যে শাজাহানপুর ও শেরপুর উপজেলার চাষিরা সবজির পাশাপাশি সবজি বীজতলা করে থাকেন। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে নানা জাতের সবজির চারা দূর-দূরান্তের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা শহরের ব্যাপারি ও চাষিরা কিনে থাকেন। 

ইতোমধ্যেই জেলার অনেক চাষি খরিপ-১ মৌসুমের আগামজাতের সবজি লাগিয়েছেন। যার মধ্যে বেগুন, চাল কুমড়া, মিষ্টি কুমড়া, করল্লা, মূলা অন্যতম। এসব সবজির খেত পরিচর্যায় দেখা গেলো বেশ কয়েকজন চাষিকে। 

কিছু-কিছু সবজি গাছে ফুল এসেছে। আবার কিছু গাছ মরে যেতে দেখা যাচ্ছে। চাষি নজরুল ইসলাম সবজি টাল ঘুরে-ঘুরে নষ্ট হওয়া গাছগুলো উঠিয়ে ফেলছেন। আর ভালো গাছগুলো টালের ওপর সুন্দরভাবে সাজিয়ে রাখছেন। 

একইভাবে বেগুনের গাছের গোড়ায় নিড়ানি দিচ্ছিলেন আবু বকর ও আমির হোসেন নামের দু’জন চাষি। খেতের ভেতর জন্মানো আগাছা পরিষ্কার করছিলেন তারা। পাশাপাশি তারা গাছের গোড়ার মাটি এলোমেলো করে নতুনভাবে বেঁধে দেন। 
রবির স্বপ্নে বুক বেঁধে খরিপের সবজি নিয়ে মাঠে চাষিরা। ছবি: আরিফ জাহানস্থানীয় চাষিরা বাংলানিউজকে জানান, রবি মৌসুমের বেশ কিছু সবজি এখনো খেতে রয়েছে। এর মধ্যে সীম, ফুলকপি, বাঁধাকপি অন্যতম। অল্প সময়ের মধ্যে এসব সবজি বিদায় নেবে। অনেক চাষি ইতোমধ্যেই এসব সবজির টাল ভেঙে নতুন মৌসুমের সবজি চাষের প্রস্তুতি শুরু করেছেন।
 
তারা জানান, রবি মৌসুমের প্রায় পুরো সময়টা আবহাওয়া অনুকূলে ছিল। বাজারে সবজির দামও ছিল ভালো। সবমিলিয়ে সবজি চাষ করে রবিতে বেশ লাভবান হয়েছেন তারা। 

বর্তমানে সবজির বাজার ভালো। তাই খরিপ-১ মৌসুম শুরু আগেই আগামজাতের সবজি চাষে মাঠে নেমেছেন তারা। নতুন মৌসুমের বেশ কয়েক জাতের সবজিও বাজারে উঠতে শুরু করেছে।

রবির স্বপ্নে বুক বেঁধে খরিপের সবজি নিয়ে মাঠে চাষিরা। ছবি: আরিফ জাহানজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালকের কার্যালয়ের হর্টিকালচার সেন্টারের ডেপুটি ডিরেক্টর কৃষিবিদ আব্দুর রহিম বাংলানিউজকে জানান, মার্চের ১৬ তারিখ থেকে খরিপ-১ মৌসুম শুরু হবে। বেগুন, মূলা, মিষ্টি কুমড়া, চাল কুমড়া, চিচিঙা, পটল, করলা, ঝিঙা, বরবটি, ঢেঁড়স, সজনে, লালশাক এ মৌসুমের অন্যতম সবজি। 
 
তিনি জানান, জেলার সবজিখ্যাত উপজেলাগুলোয় বেশ আগ থেকেই আগামভাবে সীমিত আকারে এ মৌসুমের অনেক সবজি চাষ করেছেন চাষিরা। কিছু-কিছু করে সবজি বাজারে ওঠা শুরু করেছে। 

রবি মৌসুমে ফলন ও দাম ভালো পাওয়ার কারণে চাষিরা সবজি চাষে ঝুঁকে পড়েছেন বলেও জানান কৃষি কর্মকর্তা আব্দুর রহিম। 

বাংলাদেশ সময়: ০৪১৬ ঘণ্টা, মার্চ ১৪, ২০১৭
এমবিএইচ/টিআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa