মিতু হত্যা মামলায় জামিন পেলেও মুক্তি নেই ভোলার
[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৫, ১৮ আগস্ট ২০১৮
bangla news

মিতু হত্যা মামলায় জামিন পেলেও মুক্তি নেই ভোলার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১৪ ৯:৫২:২৪ পিএম
মাহমুদা খানম মিতু হত্যায় অস্ত্র সরবরাহকারী এহতেশামুল হক ভোলা।

মাহমুদা খানম মিতু হত্যায় অস্ত্র সরবরাহকারী এহতেশামুল হক ভোলা।

চট্টগ্রাম: হাইকোর্ট থেকে জামিন পেলেও এখন মুক্তি পাচ্ছেন না সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যায় অস্ত্র সরবরাহকারী এহতেশামুল হক ভোলা।

সোমবার (১৪ মে) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের ডেপুটি জেলার মনির হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, এহতেশামুল হক ভোলা মিতু হত্যা মামলায় হাইকোর্ট থেকে ছয় মাসের জামিন পেয়েছেন। তবে ভোলার নামে মোট ১০টি মামলা রয়েছে যার মধ্যে ৭টি মামলায় জামিনে আছেন তিনি। নিয়মানুযায়ী ভোলা এখন মুক্তি পাবেন না।

মামলার সব কাগজ দেখে বিস্তারিত বলবেন বলে জানান তিনি।

সোমবার (১৪ মে) বিকেলে ভোলার জামিন মঞ্জুরের কাগজপত্র চট্টগ্রাম আদালত থেকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে বাংলানিউজকে জানান চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাব উদ্দীন আহমেদ।

তিনি বলেন, কারাগার কর্তৃপক্ষ তার মুক্তির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।

কাজী শাহাব উদ্দীন আহমেদ বলেন, ভোলা অন্য কোনো মামলায় গ্রেফতার থাকলে মুক্তি পাবেন না।

এর আগে রোববার (১৩ মে) ভোলার জামিন মঞ্জুরের কাগজপত্র হাইকোর্ট থেকে চট্টগ্রাম আদালতে পৌঁছে।

চাঞ্চল্যকর মিতু হত্যায় অস্ত্রের সন্ধান করতে গিয়ে উঠে আসে একসময় বাবুল আক্তারের সোর্স হিসেবে পরিচিত এহতেশামুল হক ভোলার নাম। পরে নগরীর বাকলিয়া এলাকা থেকে ২০১৬ সালের ২৭ জুন ভোলা ও তার অপর এক সহযোগীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। উদ্ধার করা হয় মিতু হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্র ও গুলি। এর পর কয়েক দফা রিমান্ডে নিয়ে ভোলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ।

২০১৬ সালের ৫ জুন সকাল সাড়ে ৭টায় নগরের জিইসি এলাকায় ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার পথে দুর্বৃত্তদের গুলি ও ছুরিকাঘাত নির্মমভাবে খুন হন তৎকালীন পুলিশ সুপার এবং আলোচিত পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। পরে চাকুরিচ্যুত হন বাবুল আক্তার।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৮ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০১৮
এসকে/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa