নাশকতা হলে বিএনপি নেতাদের স্থাপনায় হামলা: ছাত্রলীগ
[x]
[x]
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ভাদ্র ১৪২৫, ২১ আগস্ট ২০১৮
bangla news

নাশকতা হলে বিএনপি নেতাদের স্থাপনায় হামলা: ছাত্রলীগ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০২-০৬ ৮:৪৫:৩৫ পিএম
বক্তব্য দেন নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি

বক্তব্য দেন নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি

চট্টগ্রাম: বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রামে নাশকতার চেষ্টা হলে তার খেসারত বিএনপির সিনিয়র নেতাদের দিতে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে মহানগর ছাত্রলীগ নেতারা।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) বিএনপি-জামায়াতের সব ধরনের সন্ত্রাস-নৈরাজ্য ঠেকাতে মহানগর ছাত্রলীগ আয়োজিত জরুরি সভায় এ হুঁশিয়ারি দেন ছাত্রলীগ নেতারা।

তারা বলেছেন, চট্টগ্রামে কোনো যানবাহনে আগুন কিংবা জনসাধারণের জানমালের ওপর যদি আঘাত করা হয় তবে বিএনপির সিনিয়র নেতাদের বাসাবাড়ি, ব্যবসা-বাণিজ্যসহ অন্যান্য স্থাপনায় পাল্টা হামলার শিকার হতে হবে।

বিকেল চারটায় নগরীর দারুল ফজল মার্কেটের দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সর্বসম্মতিক্রমে বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেল চারটায় দলীয় কার্যালয় থেকে লাঠি মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

এ ছাড়া সভায় ৮ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টায় নগরীর গুরুত্বপূর্ণ তিনটি পয়েন্টে ব্যাপক জনসমাগম করার সিদ্ধান্ত হয়; পয়েন্টগুলো হচ্ছে পুরাতন রেল স্টেশন, কর্নেলহাট মোড় ও মুরাদপুর মোড়।

নগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনির পরিচালনায় সভায় বক্তব্য দেন নগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি একরামুল হক রাসেল, নাঈম রনি, নোমান চৌধুরী, সোমেন বড়ুয়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম সামদানি জনি, অমিতাভ চৌধুরী বাবু, সম্পাদক মিনহাজুল আবেদীন সানি, উপ সম্পাদক মোহাম্মদ বিন ফয়সাল, মিজানুর রহমান মিজান, জেরিনা ইয়াসমিন চুমকি, এমআর হৃদয়, শফিকুল আলম পারভেজ, সহ-সম্পাদক রাহুল দাশ, আবু সালেহ নূর চৌধুরী রিমন, সদস্য আরাফাত রুবেল, ফয়সাল অভি, জাকারিয়া হাবিব জাকির, ইসমাইল হোসেন বাতেন, মিজানুর রহমান, মোশরাফুল হক চৌধুরী, ইমরান আহমেদ শাওন, ১৮ নম্বর পূর্ব বাকলিয়া ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক মানিক, ২ নম্বর জালালাবাদ ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম বাবু প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, জিয়া পরিবারের ব্যাপক দুর্নীতির খবর এখন বিশ্ব মিডিয়ায় প্রচারিত হচ্ছে। খালেদা জিয়ার এতিমখানা দুর্নীতির মামলায় আইনি লড়াইয়ে পরাজয়ের আশঙ্কায় তারা মরণকামড় দেওয়ার চেষ্টায় রয়েছে। খালেদা জিয়া আদালতে যাওয়ার নামে পুলিশের ওপর হামলা করিয়ে তার দৃষ্টান্ত ইতিমধ্যেই দিয়েছে। ৮ ফেব্রুয়ারি এতিমখানা দুর্নীতি মামলায় আদালতের রায় ঘোষণার আগেই বিএনপি-জামায়াতের এ অপরাজনীতিতে দেশবাসী শঙ্কিত। আমরা ইতিমধ্যে জেনেছি, আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি এসএসসি পরীক্ষা চলাকালীন রায়কে ঘিরে বিএনপি-জামায়াত গণজমায়েতের নামে নাশকতার পরিকল্পনা করছে।

চট্টগ্রামে আওয়ামী পরিবার জনগণকে সঙ্গে নিয়ে বিএনপি-জামায়তের অপরাজনীতি রুখে দেবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা।

সভায় একাত্মতা জানান কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য ইরফানুল আলম জিকু এবং একে করিম।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০১৮

এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa