ঢাকা, রবিবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭

bangla news

ছিনতাইকারীর ব্যাগ টানে আহত তরুণীর মৃত্যু

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৬-২০ ১২:৪৫:০৭ এএম
লোগো

লোগো

চট্টগ্রাম: ছিনতাইকারীর ব্যাগ টানে চলন্ত রিকশা থেকে পড়ে গুরুতর আহত তরুণী শিরিন আক্তার (২৪) ছয়দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মৃত্যুর কাছে ‍হার মেনেছেন। চলন্ত রিকশায় ব্যাগ টান দেওয়ায় ওই তরুণী পড়ে গিয়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়েছিলেন।

সোমবার (১৯ জুন) রাত পৌনে ১২টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেছেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের চিকিৎসক।

চমেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক জহিরুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, শিরিন মাথায় মারাত্মক চোট পেয়েছিলেন।  তিনি হাসপাতালের সিসিইউতে ছিলেন।  রাত পৌনে ১২টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেছেন।

গত ১৩ জুন রাত পৌনে ৮টার দিকে রাতে নগরীর জামালখানে আইডিয়াল স্কুলের সামনে শিরিন ছিনতাইকারীদের কবলে পড়েন। 

শিরিনের নিকটাত্মীয়া নেবুয়ত আরা সিদ্দিকা বাংলানিউজকে বলেন, গ্রামের বাড়ি পটিয়া থেকে শিরিন ঈদের কেনাকাটার জন্য নগরীর ব্যাটারি গলিতে বোনের বাসায় এসেছিলেন।  বাসা থেকে বেরিয়ে শিরিন ও তার বোন রিকশায় করে টেরিবাজারের দিকে যাচ্ছিলেন। 

রিকশা আইডিয়াল স্কুলের সামনে পৌঁছার পর পেছন দিক থেকে মোটরসাইকেলে আসা ছিনতাইকারী শিরিনের ভ্যানিটি ব্যাগটি টান দেয়।  এসময় শিরিন নিজেকে সামলাতে না পেরে রিকশা থেকে পড়ে গিয়ে মাথায় চোট পান।  গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।  আশংকাজনক অবস্থায় তাকে নগরীর একটি বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে সিসিইউতে রাখা হয়।  রোববার তাকে আবারও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এনে সিসিইউতে রাখা হয়েছিল।    

ছিনতাইকারীরা শিরিনের ব্যাগ নিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছিল।  ব্যাগে একটি মোবাইল ফোন ও প্রায় পাঁচ হাজার টাকা ছিল। 

এই ঘটনায় শিরিনের ভাই সৈয়দুল আলম বাদি হয়ে চকবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।  তবে পুলিশ এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪০ ঘণ্টা, জুন ২০, ২০১৭

আরডিজি/টিসি   

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Alexa