Alexa
ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ বৈশাখ ১৪২৪, ২৮ এপ্রিল ২০১৭
bangla news
symphony mobile

‘ডিসি হিলের ভাড়া বাড়ানো যাবে না’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৩-২০ ৯:৪৯:৩১ পিএম
ডিসি হিল

ডিসি হিল

চট্টগ্রাম: সাংস্কৃতিকচর্চার প্রাণকেন্দ্র ডিসি হিলের ভাড়া ব‍াড়নোর সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন চট্টগ্রামের সংস্কৃতিকর্মীরা। কোন অজুহাতেই ডিসি হিলের ভাড়া বাড়ানো মেনে নেবে না বলে জানিয়েছেন তারা।

সাংস্কৃতিক সংগঠন ও সংস্কৃতিকর্মীদের সঙ্গে কোন ধরনের আলোচনা ছাড়াই আগামী ১ এপ্রিল থেকে ডিসি হিলে (নজরুল স্কয়ার) যে কোনো অনুষ্ঠান আয়োজনের ভাড়া ২ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ হাজার টাকা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রশাসন।
 
সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডকে বাধা সৃষ্টি করতেই ডিসি হিলের ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে জানিয়ে উদীচী চট্টগ্রাম জেলা সংসদের সহ সভাপতি ডা. চন্দন দাশ বাংলানিউজকে জানান, ডিসি হিলের ভাড়া ২ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা বাড়ানো সম্পূর্ণ অনৈতিক। সংস্কৃতকর্মীদের তো কোটি টাকার ইনকাম নাই। একটি অনুষ্ঠান হলে সেখানে ময়লা হবে, সেটি স্বাভাবিক। সিটি করপোরেশন তা পরিস্কার করবে।
‘কিন্তু জেলা প্রশাসন ময়লা পরিস্কারের অজুহাতে এক লাফে চারগুণ ভাড়া বৃদ্ধি করেছে। সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতেই একটি গ্রুপ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে আমি মনে করি। যা মেনে নেওয়া যায় না। আমরা জেলা প্রশাসনকে আহ্বান জানাচ্ছি, অবিলম্বে যদি ডিসি হিলের ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিল করা না হয়, তাহলে সংস্কৃতিকর্মীরা আর ঘরে বসে থাকবে না। এটা প্রতিহত করা হবে।
 
তির্যক নাট্যদল প্রধান আহমেদ ইকবাল হায়দার বাংলানিউজকে জানান, ৩৯ বছর আগে পহেলা বৈশাথ উদযাপনের মধ্য দিয়ে ডিসি হিলে প্রথম অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এরপর থেকে ডিসি হিল চট্টগ্রামের সংস্কৃতি অঙ্গনের প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। পরবর্তীতে চট্টগ্রামের শিল্পী, সাহিত্যিক, রাজনীতিবিদদের দাবির প্রেক্ষিতে ডিসি হিলে সংস্কারকাজ করা হয়। সংস্কৃতিচর্চার জন্য নির্মিত হয় বড় মঞ্চ ও গ্যালারী।
 
জঙ্গী তৎপরতারোধে সংস্কৃতি কর্মকাণ্ড অপরিহার্য ভূমিকা পালন করে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ডিসি হিলের ভাড়া বছর কয়েক আগে ৫শ থেকে এক হাজার। পরবর্তীতে গতবছরের শেষের দিকে তা বাড়িয়ে ২ হাজার করা হয়েছে। সংস্কৃতিকর্মীদের কোন মতামত না নিয়ে ভাড়া বাড়ানো সম্পূর্ণ অযোক্তিক। সরকারের টাকায় সংস্কৃতিকর্মীদের জন্য ডিসিহিলে সংস্কারকাজ, মঞ্চ ও গ্যালারি নির্মিত হয়েছে। 
‘জেলা প্রশাসক ভাড়া বাড়ানোর যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেটা বাতিল না করলে আমরা সংস্কৃতকর্মীরা আন্দোলনে যাবো।’
 
নাট্যজন প্রদীপ দেওয়ানজী বাংলানিউজকে জানান, আমরা নিজের পকেটের টাকা খরচ করে নাটক মঞ্চায়ন করি। আমরা তো কোন প্রতিষ্ঠান থেকে স্পন্সর নিয়ে অনুষ্ঠান করি না। প্রয়োজনে ডিসি হিলের ন্যায় এ সমস্ত মুক্তমঞ্চ গুলোতে লাইট ও সাউন্ড দিয়ে একটি নূন্যতম ভাড়া নির্ধারণ করা হোক। ডিসি হিলের ভাড়া বাড়ানো কোন মতেই কাম্য নয়। আমরা যারা পকেটের টাকা খরচ করে নাটক করি, তাদের বিষয়টি অন্যভাবে দেখা উচিত বলে আমি মনে করি।
 
এদিকে ডিসি হিলের ভাড়া বৃদ্ধিতে মূলধারার সুস্থ্ সাংস্কৃতি কর্মকাণ্ড ব্যাহত হওয়ার আশংকা প্রকাশ করে বিৃবতি দিয়েছে সম্মিলিত আবৃত্তি পরিষদ, চট্টগ্রাম। বিবৃতিতে তারা জানান, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও সংস্কৃতিকর্মীদের সাথে কোনরুপ আলোচনা ছাড়া সম্প্রতি জেলা প্রশাসক কার্যালয় হতে ডিসি হিলের ভাড়া ২ হাজার থেকে বাড়িয়ে ১০ হাজার টাকা করা হয়েছে। যা চট্টগ্রামের সাংস্কৃতিক সংগঠনসমূহের পক্ষে বহন করা কষ্টকর হবে। ফলে সাংস্কৃতিক কার্যক্রম মুখ থুবড়ে পড়বে। সমাজকে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ মুক্ত করতে হলে সুস্থ সংস্কৃতিচর্চার বিকল্প নেই।
 
এক্ষেত্রে সংস্কৃতিচর্চা ব্যাহত হলে জঙ্গীবাদের উত্থান হতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন চট্টগ্রামের প্রতিনিধিত্বশীল ১৮টি আবৃত্তি সংগঠনের সম্মিলিত পরিষদ চট্টগ্রামের সভাপতি রাশেদ হাসান ও সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান মাহফুজ।
 
তাছাড়া বর্তমানে সাংস্কৃতিক বান্ধব এই সরকার সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডকে উৎসাহিত করার জন্য নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে। কিন্তু জেলা প্রশাসনের ভাড়া বৃদ্ধির এ সিদ্ধান্ত সরকারের সংস্কৃতিবান্ধব বিভিন্ন পদক্ষেপের পরিপন্থী। তাই অনতিবিলম্বে অতিরিক্ত ভাড়া প্রত্যাহার করে সুস্থ সংস্কৃতিচর্চা অব্যাহত রাখার জন্য জেলা প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১২০ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০১৭
এসবি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..