bangla news

তিন নায়িকার এক মিশন

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম | আপডেট: ২০১৭-০৭-১৯ ২:২৯:০৯ পিএম
তিন নায়িকার এক মিশন
শাবনূর, পপি ও অপু বিশ্বাস, ছবি: সংগৃহীত

শাবনূর, পপি ও অপু বিশ্বাস— নাম্বার ওয়ান নায়িকার তকমা পেয়েছেন নিজেদের সময়ে। প্রথম দু’জনের রাজত্ব এখন নেই বললেই চলে। কিন্তু আলোচনায় পিছিয়ে নেই। অপুর ছন্দপতন ঘটলেও ফেরার চেষ্টা করছেন। শাবনূর ও অপু সন্তান নেওয়ার কারণে মুটিয়েছেন, অন্যদিকে পপি কাজ না থাকায়। এবার তিনজনই নেমেছেন ওজন কমানোর মিশনে, উদ্দেশ্য চলচ্চিত্রে ফেরা। 

ক’দিন আগেই ঢাকায় এসেছেন অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী শাবনূর। একটি ঘরোয়া আয়োজনে পাওয়া গেলো ‘স্লিম’ শাবনূরকে। ৯০ দশকের তার দুই সহশিল্পী ওমর সানী ও অমিত হাসান হাজির ছিলেন সেই আয়োজনে। সেখানকার কিছু স্থিরচিত্র বলছে, ২০১৫ সালের পর আরেক দফা ওজন কমিয়েছেন শাবনূর। তবে কি চলচ্চিত্রে ফিরছেন শাবনূর? 

মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘এতো প্রেম এতো মায়া’ ছবিতে অভিনয় করার কথা রয়েছে শাবনূরের। নির্মাতার প্রত্যাশা, শাবনূর কাজ করবেন তার ছবিতে। অচিরেই এ ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিতে পারবেন তিনি। 

এদিকে দু’মাস আগেও পপি এমন ছিলেন না। এরই মধ্যে ওজন কমিয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন পর নতুন ছবির শুটিংয়ে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াচ্ছেন পপি। 'রাজপথে ' ছবিতে পুলিশ চরিত্রে থাকবেন তিনি। চরিত্রের প্রয়োজনেই ওজন কমিয়েছেন তিনি।

পপি বলেছেন, ‘নতুন ছবিটির জন্যে প্রস্তুতি নিচ্ছি। নিজের শারীরিক ওজন একটু কমাতে হচ্ছে চরিত্রটির প্রয়োজনে। এতে একেবারে নতুনভাবে দেখা যাবে আমাকে। সতের বছর আগে পুলিশ অফিসার চরিত্রে অভিনয় করেছিলাম। এতোদিন পর আবারও পুলিশ অফিসার চরিত্রে অভিনয় করবো।’

অপু বিশ্বাস এখন কলকাতায় আছেন। বিরতি শেষে তিনিও ছবিতে ফেরার ঘোষণা দিয়েছেন। মাতৃত্বের স্বাদ নেওয়ার কারণে বেশ মুটিয়ে গিয়েছেন তিনি। এবার নেমেছেন মেদ ঝরানোর যুদ্ধে। কিছুদিনের সময় চেয়েছেন তিনি। ফিরেই নতুন ছবির ঘোষণা দেবেন আলোচিত এই নায়িকা। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৯ ঘণ্টা, জুলাই ১৯, ২০১৭
এসও 

Phone: +88 02 8432181, 8432182, IP Phone: +880 9612123131, Newsroom Mobile: +880 1729 076996, 01729 076999 Fax: +88 02 8432346
Email: news@banglanews24.com , editor@banglanews24.com
Marketing Department: 01722 241066 , E-mail: marketing@banglanews24.com

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কপিরাইট © 2018-07-18 12:00:25 | একটি ইডব্লিউএমজিএল প্রতিষ্ঠান