banglanews24.com lifestyle logo
 
 

ঈদের কেনাকাটায় ফ্রিজ ও ওভেন

যাকারিয়া ইবনে ইউসুফ

চারদিকে প্রস্তুতি চলছে বর্ণিল ঈদ আয়োজনের। সরগরম হয়ে উঠেছে গরুর হাট, শপিংমল ও বিভিন্ন মার্কেটগুলো। ঈদে পোশাক বা অন্যান্য জিনিস কেনার পাশাপাশি ঈদ বাজেটের একটা বড় অংশ বরাদ্দ থাকে প্রয়োজনীয় সাংসারিক জিনিসগুলোর কেনার জন্য।

এই ঈদে চাপ বেড়ে যায় রান্নাঘরে তথা গৃহিণীর ওপর। বাড়ির গৃহিণী সদাব্যাস্ত থাকেন খাবার তৈরি, পরিবেশন, সেই সঙ্গে সংরক্ষণ নিয়ে। তাই অনেকের ঈদের কেনাকাটায় চলে আসে ফ্রিজ, ওভেনসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলোর। চলুন জেনে নেয়া যাক ঈদের অন্যতম প্রয়োজনীয় ফ্রিজ ও ওভেনের খোঁজখবর

ফ্রিজের দরদাম

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রযুক্তির উৎকর্ষ সাধনের ফলে বদলে গেছে মানুষের জীবনধারা। তো বটেই, শহুরে ব্যস্ত জীবনেও ফ্রিজ ছাড়া একটি দিনও অতিবাহিত করা সম্ভব নয়। ঈদকে সামনে রেখে প্রায় প্রতিটি কোম্পানিই বাজারে এনেছে নিত্যনতুন ডিজাইনের ফ্রিজ, সেই সঙ্গে লোভনীয় অফার তো থাকছেই। ফ্রিজ এবং ডিপ ফ্রিজ গুলোর দামটা নির্ভর করে মূলত ধারণ ক্ষমতার ওপর।

এলজি: ঈদকে সামনে রেখে এলজি এনেছে বেশ কয়েকটি নতুন ডিজাইনের ফ্রিজ। এলজির ফ্রিজগুলোর মধ্যে সর্বনিম্ন ধারণক্ষমতার যে ফ্রিজটি রয়েছে সেটি সাড়ে ছয় সিএফটি। পাবেন ২২০০০ টাকার মধ্যেই। এছাড়াও মাঝারি সাইজের সাড়ে নয় সিএফটি ফ্রিজের দাম ৩৭ হাজার ৬৩০ টাকা। যাদের বড় সাইজের ফ্রিজ প্রয়োজন তাদের জন্য রয়েছে সর্বোচ্চ ৩৫ সিএফটি ফ্রিজ। তবে সাড়ে বাইশ সিএফটি ফ্রিজের দাম ৭৫ হাজার ৬৯০ টাকা। এলজির ফ্রিজগুলোতে কমপ্রেসারের জন্য থাকছে ৫ বছর ও অন্য জিনিসগুলোর ১ বছরের ওয়ারেন্টি। ঈদ অফারে পাচ্ছে স্ক্র্যাচ কার্ড ঘষেই পাচ্ছেন লোভনীয় ছাড়। ২৫হাজার টাকার ওপর কেনাকাটা করলেই পাচ্ছেন ২টি, ৫০হাজারের ওপর কেনাকাটা করলেই ৩টি এবং ৭৫ন হাজরের ওপর কেনাকাটা করলেই ৪টি স্ক্র্যাচ কার্ড। এলজির ১০০ লিটারের ডিপ ফ্রিজের দাম পরবে ২৩ হাজার ৪০০ টাকা। এছাড়াও ধারণক্ষমতার ওপর নির্ভর করে ডিপ-ফ্রিজগুলোর দাম পরবে ২০হাজার টাকা থেকে ৮০হাজার টাকা।

মাইওয়ান: মাইওয়ান কোম্পানি বাজারে এনেছে বেশ কয়েকটি মোহনীয় রঙের ফ্রিজ। সর্বাধুনিক ধারণক্ষমতা সাড়ে আট সিএফটি ফ্রিজের দাম ২৬ হাজার ৩০০ টাকা। বেশি ধারণক্ষমতার প্রয়োজন হলে নিতে পারেন ১৪ সিএফটি ফ্রিজ দাম পরবে ৩৯ হাজার টাকা। মাইওয়ানে ফ্রিজগুলোতে কমপ্রেসারের জন্য পাবেন ৭ বছর ও অন্যান্য যন্ত্রাংশের জন্য রয়েছে ২ বছরের ওয়ারেন্টি। মাইওয়ানের ১২০ লিটার ডিপ ফ্রিজের দাম পরবে ২৬ হাজার ৯০০ টাকা, সেই সঙ্গে ৫ বছরের ওয়ারেন্টি। এই ঈদে মাইওয়ান ফ্রিজ কিনলেই থাকছে অবিশ্বাস্য মূল্য ছাড় ও স্ক্র্যাচ কার্ড ঘষে শতকরা ৫-৯ভাগ পর্যন্ত ছাড়।

শার্প: বাজারে ফ্রিজের সকল যন্ত্রাংশের ৫ বছরের গ্যারান্টি দিচ্ছে শার্প। বিভিন্ন রঙ আর ডিজাইন করা জাপানী প্রযুক্তিতে তৈরি শার্পের ৮ সিএফটি ধারণক্ষমতার ফ্রিজের দাম ৩০ হাজার ৯০০ টাকা। ৩০ সিএফটি ধারণক্ষমতার ফ্রিজের দাম ২ লাখ ১৯ হাজার টাকা। আর সর্বাধুনিক ১২০ লিটারের ডিপ ফ্রিজের দাম ২২ হাজার ৯০০টাকা এবং সর্বোচ্চ ২০০ লিটারের ডিপ ফ্রিজের দাম ৩২ হাজার ৯০০ টাকা। ডিপ ফ্রিজের ক্ষেত্রে ৫ বছরের গ্যারান্টি পাওয়া যাবে। এখন পর্যন্ত কোনও ছাড়ের অফার আসেনি।

ওয়ালটন: এই ঈদে দেশীয় কোম্পানি ওয়ালটন দিচ্ছে মূল্যের ওপর শতকরা ৩% ডিসকাউন্ট আর ফ্রিজের সবকিছুতেই থাকছে ৫ বছরের ওয়ারেন্টিসহ ফ্রি সার্ভিসিংয়ের ব্যবস্থা। ওয়ালটনের সাড়ে আট সিএফটি ফ্রিজের দাম ২৪ হাজার ৬০০ টাকা। বড় সাইজের ২০ সিএফটি দাম ৪৫ হাজার ৫০০ টাকা। একই ডিসকাউন্টে ওয়ালটনের নজরকাড়াসব ডিপ ফ্রিজ পাওয়া যাবে। ওয়ালটনের ১৪৫ লিটারের ডিপ ফ্রিজের দাম ২৪ হাজার ৬০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৩০০ লিটারের ডিপ ফ্রিজের দাম ৩৫ হাজার টাকা।

সনি র‌্যাংগস: সনি কোম্পানির সাড়ে সাত সিএফটি ফিজের দাম ২৮ হাজার ৭৫০ টাকা এবং সাড়ে পনেরো সিএফটি ফ্রিজের দাম ৪৪ হাজার ৭০০ টাকা। ফ্রিজের ক্ষেত্রে এখন পর্যন্ত কোনও ছাড় দেয়া হচ্ছে না। তবে ফ্রিজের সকল যন্ত্রাংশের ক্ষেত্রে থাকছে ৫ বছরের ওয়ারেন্টি। সনি র‌্যাংগসের ৫ সেপ্টির ডিপ ফ্রিজের দাম পরবে ২২ হাজার ৯৯০টাকা এবং সর্বোচ্চ ৩৫০লিটারের দাম ৩৭ হাজার ৯৯০ টাকা। ডিপ ফ্রিজের ক্ষেত্রেও ৫ বছরের ওয়ারেন্টি।

স্যামসাং: ঈদকে সামনে রেখে স্যামসাংগের বেশ কিছু ফ্রিজ বাজারে এসেছে। স্যামসাংগের ১০ সিএফটি ফ্রিজের দাম ৪৪ হাজার ৮০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২০ সিএফটি দাম ৫৬ হাজার ৮০০ টাকা। স্যামসাংগের ফ্রিজগুলোর কমপ্রেসারের ক্ষেত্রে ৫ বছরের এবং অন্যান্য যন্ত্রাংশের ক্ষেত্রে ২ বছরের গ্যারান্টি রয়েছে। স্যামসাংগের ৩০০ লিটার ধারন ক্ষমতার ডিপ ফ্রিজের দাম ৪২ হাজার টাকা এবং সর্বোচ্চ ৪২০ লিটারের দাম পরবে ৫৭ হাজার ৮০০ টাকা। ডিপ ফ্রিজের ক্ষেত্রে থাকছে ৫বছরের ওয়ারেন্টি।

এছাড়াও প্যানাসনিক বাজারে এনেছে নিত্যনতুন মডেলের কয়েকটি ফ্রিজ।

১০ সিএফটি দাম ৪০ হাজার টাকার মধ্যেই। এ ছাড়া ১ লাখ ৩৫ হাজার টাকায় পাবেন ২৮ সেপ্টির ফ্রিজ। কমপ্রেসারের ক্ষেত্রে পাচ্ছেন ৫ বছর ওয়ারেন্টি। অন্যান্য যন্ত্রাংশের ক্ষেত্রে এ বছরের ফ্রি সার্ভিসিং। হাইসেন্স কোম্পানির ১০ সিএফটি ধারণক্ষমতার ফ্রিজের দাম ৩৫ হাজার ৪৯০ টাকা। সাড়ে ১৬ সিএফটি ফ্রিজের দাম পড়বে ৪৫ হাজার ৯৯০ টাকা। ৩ হাজার টাকা পণ্য ক্রয়ে পাচ্ছেন স্ক্র্যাচ কার্ড ঘষে আকর্ষণীয় অফার। আর কমপ্রেসারে ৫ বছর ওয়ারেন্টি। এ ছাড়া বাজারে ব্র্যান্ডের ফ্রিজগুলোর পাশাপাশি বিভিন্ন সাইজের চাইনিজ ও কোরিয়ান ফ্রিজ নগদ কিনলে দাম পড়বে ২০ হাজার থেকে ৪০ হাজার টাকা। কিস্তিতে কিনলে শতকরা একটা নির্দিষ্ট টাকা ডাউন পেমেন্ট দিয়ে কিনতে পারেন আপনার পছন্দের ফ্রিজটি।

মাইক্রোওভেনের খোঁজে

বাজারে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক মানের মাইক্রোওভেনের কোম্পানি রয়েছে। পাশাপাশি চাইনিজ ওভেনগুলো তো রয়েছেই। এলজির ১৯ লিটার ধারণক্ষমতার ওভেনের দাম ১০ হাজার টাকা এবং ৩০ লিটারের দাম ২৩ হাজার ৪২০ টাকা। ঈদ উপলক্ষে স্ক্র্যাচ কার্ড ঘষে পেতে পারেন লোভনীয় পরিমানের ছাড়। সেই সঙ্গে ১ বছরের ওয়ারেন্টি। বাটারফ্লাইও নানারকম পরিমাণের ছাড়ে বাজারে মাইক্রোওভেন এনেছে। বাটারফ্লাইয়ের ২৩ লিটার ধারণক্ষমতার ওভেনের দাম ১৩ হাচার টাকার মধ্যেই আর ২৫ লিটার ধারণক্ষমতার ওভেনের দাম ২৩ হাজার ৯০০ টাকা। পাবেন ১ বছরের ওয়ারেন্টি। সব ধরনের যন্ত্রাংশে ১ বছরের ওয়ারেন্টি দিচ্ছে সিবেক। সিবেকের ২০ লিটার ধারণক্ষমতার ওভেনের দাম ১০ হাজার ২০০ টাকা, ২৮ লিটারের দাম ২০ হাজার ২০০ টাকা। ঈদে মূল্য ছাড় তো থাকছেই। নগদ টাকা ডিসকাউন্ট ও ১ বছরের ওয়ারেন্টি নিয়ে বাজারে বেশ কিছু ওভেন এনেছে সনি র‌্যাংগস।

সনি র‌্যাংগসের নরমাল ২৩ লিটারের ইলেকট্রিক চুলার দাম পরবে ৩ হাজার ৭০০ টাকা। সনি র‌্যাংগসের ৩৮ লিটার ধারণক্ষমতার মাইক্রোওভেনের দাম ২৭ হাজার ৪০০ টাকা। ১ বছরের ওয়ারেন্টি তো থাকছেই। পবিত্র ঈদ উপলক্ষে নগদ ৩% টাকা ছাড় ও ১ বছরের ওয়ারেন্টি। ওয়ালটনের ২০ লিটার ওভেনের দাম ১১ হাজার ৩০০ টাকা আর সর্বোচ্চ ৩০ লিটার ধারণক্ষমতার মাইক্রোওভেনের দাম ১৪ হাজার ৯০০ টাকা। সার্পের ২০ লিটার ধারন ক্ষমতার মাইক্রোওভেনের দাম ১১ হাজার টাকা এবং ২৬ লিটার ধারণ ক্ষমতার মাইক্রোওভেনের দাম ২৩ হাজার টাকা। সঙ্গে থাকছে এক বছরের ওয়ারেন্টি। বিশেষ ঈদ অফার ও ১ বছরের যন্ত্রাংশ সার্ভিসিং অফার।

কনকার ২৫ লিটার ধারণক্ষমতার ওভেনের দাম ১২ হাজার টাকা। ৩০ লিটার ধারণক্ষমতার ওভেনের দাম ১৫ হাজার টাকা। এছাড়া ১৫-১৭ হাজার টাকার মধ্যেই বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মাইক্রোওভেন পাবেন।

সবইতো জানলেন পছন্দ মতো ফ্রিজ বা ওভেন কিনতে আজই চলে যান আপনার পছন্দের ব্র্যান্ডের শো-রুমে।

comments powered by Disqus
Bookmark and Share
 
© 2014, All right ® reserve by banglanews24.com