banglanews24.com lifestyle logo
 
 

ট্রেন ভ্রমণের আদ্যপান্ত

লাইফস্টাইল ডেস্ক

বর্তমানে আমাদের দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থায় সড়কের যে অবস্থা সে তুলনায় রেলে ভ্রমণ করা নিরাপদ আরামদায়ক এবং আনন্দময়।  

রাজধানী ঢাকা থেকে শুধুমাত্র বরিশাল ছাড়া অন্য সব বিভাগে এবং অনেক জেলা ও উপজেলা সদরে ট্রেনে যাওয়া যায়। সাধারণত ট্রেন ঠিক সময়ে ছেড়ে যায় এবং সঠিক সময়ে গন্তেব্যে পৌঁছে। রেলে ভ্রমণ করতে কষ্ট যেমন কম তেমনি খরচও সাধ্যের মধ্যে।

রেলস্টেশন

ঢাকা ও এর আশপাশের রেলস্টেশনগুলো হচ্ছে কমলাপুর, তেজগাঁও, বনানী, ক্যান্টনমেন্ট, টঙ্গী, জয়দেবপুর, নারায়ণগঞ্জ এবং গেন্ডারিয়া।

টিকেট সংগ্রহ

বাংলাদেশ রেলওয়ের টিকেট রেল স্টেশন থেকে সংগ্রহ করতে পারেন। এছাড়াও বাংলালিংক এবং গ্রামীনফোনের মাধ্যমে টিকেট সংগ্রহ করতে পারেন।

ঢাকা কমলাপুর রেল স্টেশন- ৯৩৫৮৬৩৪, ৮৩১৫৮৫৭, ৯৩৩১৮২২, ০১৭১১-৬৯১৬১২

বিমানবন্দর রেল স্টেশন- ৮৯২৪২৩৯

ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া আন্তনগর ট্রেনগুলো:

  • মহানগর প্রভাতী সকাল  ৭:৪০ মিনিটে
  • সুবর্ণা এক্সপ্রেস বিকেল-৪:৪০ মিনিটে
  • মহানগর গোধুলী শুরু করে বিকেল-৩:২০ মিনিটে।
  • তুর্না   রাত-১১:৩০।

ঢাকা থেকে সিলেটের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া আন্তনগর ট্রেনগুলো:

  • পরাবত এক্সপ্রেস  সকাল- ৬:৪০ মিনিটে।
  • জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস দুপুর- ১২ টায়।
  • উপবন এক্সপ্রেস রাত- ৯:৫০:০০ সিলেট।

ঢাকা থেকে খুলনার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া আন্তনগর ট্রেন

  • সুন্দরবন এক্সপ্রেস সকাল ৬:২০ মিনিটে
  • চিত্রা এক্সপ্রেস সন্ধ্যা- ৭:০০

ঢাকা থেকে রাজশাহীর উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া আন্তনগর ট্রেন

  • ধূমকেতু এক্সপ্রেস সকাল- ৬ টায়
  • সিল্ক সিটি এক্সপ্রেস বেলা ২:৪০ মিনিটে।

এছাড়াও

  • এগারসিন্দুর প্রভাতী  সকাল ৮:১০ মিনিটে ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ
  • তিস্তা এক্সপ্রেস সকাল ৭:২০ মিনিটে ঢাকা থেকে দেওয়ানগঞ্জ বাজার
  • উপকূল এক্সপ্রেস সকাল ৭ টায় ঢাকা থেকে নোয়খালী
  • অগ্নবীণা  সকাল ৯:৩০ মিনিটে  ঢাকা থেকে তারাকান্দি
  • লালমনি এক্সপ্রেস রাত ১০:১০ মিনিটে ঢাকা থেকে লালমনিরহাট
  • দ্রুতযান এক্সপ্রেস  সন্ধ্যা ৭:৪০ মিনিটে ঢাকা থেকে দিনাজপুর।

কমলাপুর রেল স্টেশনের কর্মকর্তা আমজাদ হোসেন বাংলানিউজকে জানান, আন্ত:নগর ট্রেনগুলোতে যাত্রীদের জন্য বিভিন্ন সুবিধার কথা। এর মধ্যে রয়েছে, বিভিন্ন ধরনের খাবার পরিবেশন। যাত্রী তার পছন্দ মতো খাবার কিনে খেতে পারেন। বগি থেকে যাত্রীদের খাবার পৌঁছে দেবার ব্যবস্থাও থাকে। নামাজের ব্যবস্থাও থাকে চলন্ত ট্রেনে।

প্রত্যেক বগিতেই ইমার্জেন্সি ব্রেক থাকে। সেটি ব্যবহার করে জরুরি অবস্থায় ট্রেন থামানো যায়। তবে অপ্রয়োজনে সেটা করলে ২০০ টাকা জরিমানা দিতে হয়।

বিভিন্ন জায়গার ট্রেনের ভাড়া: ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী ট্রেনের ভাড়া শোভন চেয়ার ১৫০ টাকা, এসি চেয়ার ৩৪৫ টাকা এবং কেবিন এসি চেয়ার ৪৯৫ টাকা।

ঢাকা থেকে সিলেটগামী ট্রেনের ভাড়া শোভন চেয়ার ১৫০ টাকা, চেয়ার ১৮০ টাকা এবং এসি চেয়ার ৪৬০ টাকা।

comments powered by Disqus
Bookmark and Share
 
© 2014, All right ® reserve by banglanews24.com