[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৩ মে ২০১৮

bangla news

কলকাতায় কুরিয়ারের সঙ্গে পাল্লা দিতে মাঠে ডাক বিভাগ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৪-২২ ৪:০৫:৩৩ পিএম
ডাকঘর, বাংলানিউজ

ডাকঘর, বাংলানিউজ

কলকাতা: রোদ, বৃষ্টি ও ঝড়ে ডাকঘরে এসে পার্সেল জমা দেওয়ার দিন ফুরিয়েছে কলকাতায়। বেসরকারি কুরিয়ার সংস্থাগুলোর সঙ্গে পাল্লা দিতে মাঠে নেমেছে সরকারি ডাক বিভাগ।

ফোন করলেই পার্সেল নিতে বাড়ির দরজায় হাজির হচ্ছেন ডাক বিভাগের কর্মীরা। এ জন্য অতিরিক্ত ফিও দিতে হচ্ছে না। ঘরে বসেই যেকোনো গন্তব্যে পাঠিয়ে দেওয়া যাচ্ছে উপহার কিংবা প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র।

ডাক বিভাগ সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন এতো পরিমাণ পার্সেল আসছে যে, তা পাঠাতে হিমসিম খাচ্ছেন কর্মীরা। পশ্চিমবঙ্গের সব জেলায় এ সেবা চালু করার পরিকল্পনা নিয়েছে ডাক বিভাগ। আপাতত কলকাতায় চালু রয়েছে।

পার্ক স্ট্রিট পোস্ট অফিসের মাস্টার আশীষ সরকার বাংলানিউজকে বলেন, ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিনই পার্সেল দিয়ে বেরিয়ে পড়ছেন কর্মীরা। তবে লোকবল কম হওযায় বর্তমানে পার্সেল পাঠাতে বেগ পেতে হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন,  ডাক বিভাগের ফোন নম্বরে যোগাযোগ করলেই নির্দিষ্ট স্থানে হাজির হচ্ছেন কর্মীরা। সেখান থেকে তারা পার্সেল নিয়ে আসেন ডাকঘরে। পরে পার্সেল মালিক ডাক বিভাগের কাউন্টারে টাকা জমা দিলেই তা পৌঁছে যাচ্ছে নির্দিষ্ট ঠিকানায়।

পোস্ট অফিসগুলোর মতে, এখন অনেকেই পার্সেল পাঠানোর জন্য বেসরকারি কুরিয়ার সংস্থাগুলোকে বেছে নিচ্ছেন। তারা ডাকঘরে আসেন না। তাই ডাকঘরের প্রতি আস্থা ফেরাতে নতুন এ প্রকল্প হাতে নিয়েছে ডাক বিভাগ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০১৮
ভিএস/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa