[x]
[x]
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ বৈশাখ ১৪২৫, ২৪ এপ্রিল ২০১৮

bangla news

নববর্ষে কলকাতার বুকে বাংলাদেশ 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৪-১৫ ৫:২১:২৩ এএম
পহেলা বৈশাখ

পহেলা বৈশাখ

কলকাতা: কলকাতায় বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশন অত্যন্ত উৎসব মূখর পরিবেশে ‘মঙ্গল শোভাযাত্রা’র মাধ্যমে বাংলা ১৪২৫ এর আগমন উদযাপন করে। 

পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলায় অধ্যয়নরত বাংলাদেশি ছাত্র ছাত্রীদের তৈরি রং বেরঙের মুখোশ নিয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রা দর্শকদের দৃষ্টি কেড়েছে। 

এই মঙ্গল শোভাযাত্রাটি পার্ক সার্কাস সংলগ্ন বাংলাদেশ গ্রন্থাগার ও তথ্য কেন্দ্র হয়ে পার্কসার্কাস ৭ পয়েন্ট ক্রসিং পার হয়ে এ.জি.সি বোস রোড ধরে, বঙ্গবন্ধু মুজিব সরনী পার হয়ে বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশন প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। এই শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন উপ-হাইকমিশনের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারিসহ তাদের পরিবারের সদস্যরা। এছাড়া ছিলেন কলকাতায় সোনালী ব্যাংক শাখা, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কর্মকর্তা কর্মচারিরা। তাদের সাথে পায়ে পা মেলান কলকাতার কবি সাহিত্যিক বুদ্ধিজীবী ও বিভিন্ন পেশার মানুষ। 

এরপর বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে বাঙালির ঐতিহ্য নিয়ে বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপ-হাইকমিশনের প্রাঙ্গণে, বাঙালির চিরায়ত ঐতিহ্য মেনে মেলা ও বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। নাগরদোলা, বায়োস্কোপ, পালকি, ও শিশুদের বিভিন্ন ধরনের খেলনার আয়োজন ছিলো এই মেলায়। 

এছাড়া হাওয়াইমিঠাই, বাতাশা, মোয়া, মুরকী, পিঠা, ঝাল মুড়ি, পান্তা ও বিভিন্ন প্রকার ভর্তা, খিচুড়ির স্বাদে সবাই উপভোগ করেন বাংলার মজার খাবার।

উপ-হাইকমিশনার তৌফিক হাসান বলেন, প্রতিবারের মতো এবারও কলকাতার রাজপথে মঙ্গল শোভাযাত্রায় মানুষ অংশগ্রহণ করে যে অভূতপূর্ব সাড়া দিয়েছেন, তাতে আমি পরবর্তীতে আরও ভালো অনুষ্ঠান করার উৎসাহ পাই। বাংলাদেশের মতোই ‘বাংলা নববর্ষ ১৪২৫’ এখানেও সুন্দরভাবে উদযাপিত হয়েছে। প্রতিবারই যেন এমনিভাবেই পহেলা বৈশাখ উদযাপিত হয়, এমন আশাও করেন তিনি।  


বাংলাদেশ সময়: ০৫২০ ঘণ্টা, ১৫ এপ্রিল, ২০১৮
ভিএস/এসআইএস

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa